‘টার্গেট কিলিং পরিকল্পিত, আ.লীগ জড়িত’

30045সময়ের কণ্ঠস্বর- দেশে সাম্প্রতিক ‘টার্গেট কিলিং’কে পরিকল্পিত বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আর এর জন্য তিনি দায়ী করেছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগকে।

বুধবার রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনের লেডিস ক্লাবে ২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) আয়োজিত ইফতারে তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘দেশে এর আগে কখনো এমন টার্গেট কিলিং ঘটেনি। মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ- সব ধর্মের মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। এটা পরিকল্পিত। আওয়ামী লীগের লোকজন এতে জড়িত। এই জন্যই হাসিনা বলেছেন, তিনি জানেন। সে জন্য জেনেও এদের ধরে না। এদের অনেককে বিদেশে পাঠিয়ে দিয়ে এখন সাধারণ মানুষকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।”

খালেদ জিয়া বলেন, “দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আছে কি না বলা মুশকিল। এ অবৈধ সরকার দেশ শাসন করছে, নাকি অন্য কোনো শক্তি পেছন থেকে কাজ করছে, জনগণের মধ্যে এই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।”

ঘরে-বাইরে কোথাও মানুষ নিরাপদ নয়, এমন অভিযোগ করে খালেদা জিয়া বলেন, এই নিরাপত্তাহীন, গণতন্ত্রহীন অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ”

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ড. টি আই ফজলে রাব্বীর সভাপতিত্বে ইফতারে জোটের শরিকদের মধ্যে শফিউল আলম প্রধান, ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, জেবেল রহমান গাণি, ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, খন্দকার গোলাম মোর্তুজা, মো. কামারুজ্জামান, মজিবুর রহমান পেশওয়ারী, অ্যাডভোকেট আজহারুল ইসলাম, কমরেড সাঈদ আহমেদ, খাজা গরীবে নেওয়াজ, আবুল কাশেম, শাহাদাত হোসেন সেলিম, গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, এম আমিনুর রহমান, জামায়াতের অ্যাডভোকেট মশিউর আলম, ড. হেলাল উদ্দিন প্রমুখ অংশ নেন।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ, ড. মাহবুব উল্লাহ, মাহফুজ উল্লাহ প্রমুখ।