স্বাদে অনন্য বিভিন্ন পদের হালুয়া তৈরির রেসিপি !

aewg

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ পবিত্র শবেবরাতে ঘরে ঘরে হালুয়া-রুটি তৈরির রীতি আমাদের বেশ পুরনো। কিন্তু শবে বরাত ছাড়াও খেতে পারেন মজাদার ভিন্ন স্বাদের সব হালুয়া। মজাদার হালুয়া তৈরি করে প্রিয়জনের মুখে তুলে দিতে কার না মন চায়? তাদের জন্য রইলো হালুয়া তৈরির রেসিপি-

শাহী হালুয়া
উপকরণ : বুটের ডাল ১ কেজি, পানি পরিমাণমতো, চিনি দেড় কেজি বা নিজেদের স্বাদ অনুযায়ী, ঘি ৫০০ গ্রাম, কিশমিশ ১০০ গ্রাম, পেস্তাবাদাম ১০০ গ্রাম, কাজুরিবাদাম ১০০ গ্রাম, জাফরান আধা চা চামচ, মাশুয়া গুঁড়া করা ৫০০ গ্রাম, গুঁড়াদুধ ১ কাপ, এলাচ ৮-১০টি, দারুচিনি ৩ টুকরো।

প্রণালি : প্রথমে বুটের ডাল ভালো করে ধুয়ে নিন। এরপর পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ১ ঘণ্টা। পরিমাণমতো পানিতে ডাল সিদ্ধ করে নিন মাখা মাখা করে। এরপর পাটায় মিহি করে বেটে নিন। হাঁড়িতে ঘি গরম করুন। ঘিতে এলাচ ও দারুচিনি দিন। বাটা ডাল দিন। আস্তে আস্তে করে ডাল ঘিতে ভাজতে থাকুন। সুগন্ধ বের হলে এতে চিনি, অল্প বাদাম কুচি এবং অল্প মাওয়া গুঁড়া দিয়ে নাড়তে থাকুন। খেয়াল রাখুন যেন পোড়া না লাগে। এ ভাবে প্রায় দুই ঘণ্টা নাড়ুন। জ্বাল কমিয়ে রাখুন। হালুয়া প্রায় হয়ে এলে এতে অবশিষ্ট বাদাম কুচি, মাওয়া ঘি এবং জাফরান পানিতে গুলিয়ে ঢেলে দিয়ে আবার নাড়ুন। হালুয়া ঘন হয়ে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ডিমের হালুয়া
উপকরণ : ডিম ১২টি, চিনি ৫০০ গ্রাম, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ, বাদাম কুচি ১/২ কাপ, জাফরান পানিতে গোলানো ১ টেবিল চামচ, গোলাপজল সামান্য, মাওয়া আধা কাপ, ঘি ৩০০ গ্রাম। এলাচ ৭-৮টি।

প্রণালি : ডিমের শুধু কুসুম দিয়ে এই হালুয়া তৈরি করতে হয়। কাজেই ১২টি ডিমের কুসুম, চিনি ও গোলাপজল একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর পাতিলে ঘি গরম করুন। এলাচা হালকা করে ভাজুন। ব্লেন্ড করা ডিমের মিশ্রণ দিয়ে নাড়তে থাকুন। চুলোর জাল কমিয়ে রাখুন। ধীরে ধীরে নাড়তে হবে। এরপর এতে জাফরান পানি, মাওয়া ও বাদাম কুচি দিয়ে আবার নাড়ুন। হালুয়া দানা দান হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন সাজিয়ে।

সুজি গাজরের বরফি
উপকরণ : সুজি ৫০০ গ্রাম, গ্রেট করা গাজর ১ কেজি, গোলাপজল ১/২ চা চামচ, গুঁড়াদুধ ২ কাপ, বাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ, কিশমিশ আধা কাপ, জাফরান ১ চা চামচ, ঘি ৩০০ গ্রাম, চিনি আধা কেজি, এলাজ গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রণালি : পাতিলে ঘি গরম করুন। এতে প্রথমে সুজি সোনালি রঙ করে ভেজে তুলুন। এরপর আবার ঘি গরম করুন। গ্রেট করা গাজর দিয়ে ভেজে তুলুন। এখন গাজর, সুজি, চিনি, দুধ, বাদাম কিশমিশ একসঙ্গে দিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন। হালুয়া আঠালো হলে একটি বড় ডিশে ঘি মাখিয়ে এতে ঢালুন। গরম অবস্থা সাথে সাথে বরফির আকারে কাটুন, এরপর পরিবেশন করুন বাদাম কুচি ও কিশমিশ দিয়ে সাজিয়ে।

ছানা পেঁপের হালুয়া
উপকরণ : ছানা ২ কাপ, চিনি আড়াই কাপ, গোলাপজল আধা চা চামচ, পেঁপে গ্রেট ২ কাপ, ঘি আধা কাপ, এলাচ ২টি, ১ টুকরা দারুচিনি গুঁড়া, তবক পরিমাণমতো, নারকেল বাটা ১ কাপ।

প্রণালি : ঘিয়ের মধ্যে গ্রেট করা পেঁপে দিয়ে পানি শুকিয়ে নিতে হবে। এর মধ্যে ছানা, চিনি, নারকেল বাটা, এলাচ গুঁড়া, গোলাপজল, দারুচিনি গুঁড়া দিয়ে শক্ত হয়ে এলে নামিয়ে পিঁড়িতে ঘি মেখে অল্প সময়ের মধ্যে রুটির মতো বানিয়ে বরফির সাইজ বা যে কোনো ডিজাইন করে কেটে নিতে হবে।

জাফরানি হালুয়া
উপকরণ : পোলাওর চাল ১ কাপ, গুঁড়া দুধ ১ কাপ, মাওয়া ২ টেবিল চামচ, জাফরান সামান্য, কেওড়া সামান্য, চিনি আধা কাপ, ক্রিম বা দুধের সর আধা কাপ, ঘি ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ, এলাচ গুঁড়া ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ, পানি ২ কাপ।

প্রণালি : প্রথমে পাত্রে ঘি দিয়ে চালের গুঁড়া ভাজতে হবে। এরপর পানি দিয়ে এক এক করে ক্রিম বাদে সব উপকরণ দিয়ে জ্বাল দিতে হবে, পানি শুকিয়ে ঘি ওপরে উঠে এলে নামিয়ে ডিশে ঢেলে বাদাম কুচি ও কিশমিশ দিয়ে সাজিয়ে নিতে হবে। এবার পছন্দ অনুযায়ী শেপে কেটে নিতে হবে।