জার্মানি ও ফ্রান্সের সেনা পাঠানো আগ্রাসন: সিরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ


4bk6c33510c9078sp1_800C450সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে জার্মানি ও ফ্রান্সের সেনা মোতায়েনকে ‘অন্যায় আগ্রাসন’ বলে এর কঠোর প্রতিবাদ করেছে দামেস্ক সরকার। সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজ (বুধবার) বলেছে, কুবানি ও মানবিজ শহরে মার্কিন সেনাদের পাশাপাশি জার্মানি ও ফ্রান্সের সেনা মোতায়েন সরাসরি সিরিয়ার স্বাধীনতা-সর্বভৌমত্বের চরম লঙ্ঘন।

মন্ত্রণালয় আরো বলেছে, যেকোনো গোষ্ঠী বা দেশ যদি সিরিয়ায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে আগ্রহী হয় তাহলে তাদেরকে অবশ্যই সিরিয়ার সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে আসতে হবে। বিনা অনুমতিতে এ ধরনের সন্ত্রাস-বিরোধী কথিত লড়াইয়ের নামে সিরিয়ার মাটিতে বিদেশি সেনা উপস্থিতি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। সিরিয়া সরকারকে কোনোভাবে এড়িয়ে যাওয়ারও সুযোগ নেই।

এদিকে, ব্রিটেনভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, কুবানি শহরের কাছে ফ্রান্সের সেনারা একটি ঘাঁটি তৈরি করছে। ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রীও গত সপ্তাহে সিরিয়ায় তার দেশের সেনা উপস্থিতির কথা স্বীকার করেছেন। কিন্তু জার্মান সরকার সিরিয়ায় সেনা পাঠানোর কথা অস্বীকার করছে।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like: