৩ জেলার সাথে ঢাকার দুর পাল্লার কোচ চলাচল বন্ধ

dinajpur-bus strike-15-06-16_131799সময়ের কণ্ঠস্বর – বৃহত্তর দিনাজপুরের (ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, দিনাজপুর) ৩ জেলার সাথে রাজধানী ঢাকার সকল প্রকার দুর পাল্লার কোচ দ্বিতীয় দিনের মতো চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ সহ ব্যবসায়িরা।

বেতন-ভাতা নিয়ে হানিফ এন্টারপ্রইজ এর মালিকের সাথে তার শ্রমিক-কর্মচারীদের দ্বন্দ্বের জের ধরে সৃষ্টি হয়েছে এ পরিস্থিতি।

কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির দাবিতে তিন জেলার (পঞ্চগড়-ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর) মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা গাড়ি চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। এর আগেই মঙ্গলবার সকাল থেকে বৃহত্তর দিনাজপুরের (ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, দিনাজপুর) ৩ জেলার সাথে রাজধানী ঢাকার সকল প্রকার দুর পাল্লার কোচ চলাচল বন্ধ করে দেয় রাজধানী ঢাকার পরিবহণ মলিকরা। এতে চরম দূর্ভোগে পড়ে ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় ও দিনাজপুরের যাত্রীরা। দিনাজপুরের (ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, দিনাজপুর) ৩ জেলার সাথে রাজধানী ঢাকার সকল প্রকার দুর পাল্লার কোচ চলাচল বন্ধের দ্বিতীয় দিন হচ্ছে আজ।

এ ব্যাপারে দিনাজপুরের মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি জানান, এটা আমাদের অনেক আগের দাবি। অন্য গাড়ির তুলনায় হানিফ পরিবহনের বেতন অনেক কম। তাই সবার সিদ্ধান্ত মোতাবেক গাড়ি চলাচল বন্ধের সিন্ধান্ত হয়। এ নিয়ে রাজশাহী ও পার্বতীপুরে মিটিং ছিল। কিন্তু কোন প্রকার সমাধান হয় নাই। এর আগেই মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজধানী ঢাকার পরিবহণ মলিকরা বৃহত্তর দিনাজপুরের (ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, দিনাজপুর) ৩ জেলার সাথে রাজধানী ঢাকার সকল প্রকার দুর পাল্লার কোচ চলাচল বন্ধ করে দেয়।

হানিফ কোচের বিপুল সংখ্যক ড্রাইভার, সুপারভাইজর ও হেলপার ডিউটি থেকে বিরত রয়েছে। তাদেরও অভিযোগ হানিফ কোচ কর্তৃপক্ষ ইচ্ছাকৃত ভাবে তাদের ডিউটি দিচ্ছে না। তাদের মনোপুত মুষ্টিময় স্টাফ দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কোচ চালাচ্ছে। ফলে বিপুল সংখ্যক স্টাফ ডিউটি থেকে বঞ্চিত রয়েছে। দীর্ঘদিন ডিউটি না করায় পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছে। বার বার মালিকদের কাছে ডিউটির জন্য অনুরোধ করলেও কোন গুরুত্ব দেয়নি। হানিফ কোচ কর্তৃপক্ষের স্বৈরাচারী আচরনে সকল স্টাফরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। স্টাফদের দাবী না মানলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য হানিফ নাইট ও দিবা কোচ বন্ধ থাকবে।