ভারতে ধর্মীয় আচার পালন করতে গিয়ে জ্বলন্ত কয়লায় ৬ বছরের ছেলেকে ফেলল বাবা!

সনবহ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ধর্মীয় আচার পালনের সময় বাবার হাত থেকে একেবারে জ্বলন্ত কয়লার স্তূপে পড়ে গিয়েছিল ৬ বছরের শিশুটি। এরফলে পুড়ে যায় তাঁর শরীরের একাংশ। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার পাঞ্জাবের জলন্ধরে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। (ছবি) বিয়ে সংক্রান্ত আজব আচার-রীতি যা এখনও মানা হয়! প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায় ধর্মীয় আচার মেনে জ্বলন্ত কয়লার রাস্তায় ছেলে কার্তিককে কোলে নিয়ে খালি পায়ে হাঁটছিল বাবা। আচমকা ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন এবং অনিচ্ছাকৃতভাবেই ছেলে তাঁর হাত থেকে সোজা জ্বলন্ত কয়লার উপর পড়ে যায়। ধর্মীয় আচার পালন করতে গিয়ে জ্বলন্ত কয়লার স্তুপে ৬ বছরের ছেলেকে ফেলল বাবা! প্রত্যক্ষদর্শীরা সময় নষ্ট না করে কার্তিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। যদিও কার্তিকের পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে যেতে রাজি হননি। তাদের কথায়, ভগবানই তাঁকে আগুনে ফেলেছে, ভগবানই তার ক্ষত মেটাবে। চিকিৎসকদের কথায়, কার্তিকের শরীরের প্রায় ২০-২৫ শতাংশ অংশ পুড়ে গিয়েছে। কার্তিকের বাবারও শরীরে ১৫ শতাংশ পুড়ে যাওয়ার ক্ষত রয়েছে। এই ক্ষত সারতে কম করে ১০-১২দিন লাগবে। মা মরিয়াম্মার পুজোতে জলন্ধরের কাজি মন্দিরে জড়ো হয়েছিল প্রায় ৬০০ ভক্ত। এই অর্চনায় ভক্তরা সাত দিন উপোষ করে থাকেন। এরপর দেবীকে সন্তুষ্ট করতে খালি পায়ে কয়লার উপর হাঁটে তারা। এই অনুষ্ঠানে এই প্রথমবার নয়, এর আগেও অঘটন ঘটেছে। বিজেপি বিধায়ক মনোরঞ্জন কালিয়া আহত কার্তিক ও তাঁর বাবার সঙ্গে দেখা করে। ১০,০০০ টাকার আর্থিক সাহায্য তুলে দেওয়া হয় তাদের হাতে।