দীর্ঘ ১ বছর পর মিলল নিখোঁজ বিএনপি নেতার কঙ্কাল

kustiya

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি – ১ বছর আগে নিখোঁজ হওয়া কুষ্টিয়ার কুমারখালীর গড়াই ইটভাটার মালিক ও বিএনপি নেতা মিরাজুল ইসলাম মিরাজের কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। মিরাজ চাপড়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এদিকে এ খবর পেয়ে মিরাজের বাড়ীতে পরিবারের লোকজন রাতেই কাঁন্নায় ভেঙে পড়ে।

গতকাল বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার মীর মোশাররফ হোসেন সেতুর পাশে গড়াই নদীর তলদেশের বালি সরিয়ে পুলিশ মরদেহের কংকালের কিছু অংশ উদ্ধার করে।

কুমারখালীর থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়াউর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ২০১৫ সালের ৪ জুন (বৃহস্পতিবার) রাত ৯ টার দিকে মিরাজ তার ব্যবসায়িক পার্টনার কোহিনুরের মোটর সাইকেলে বাড়ি থেকে লাহিনী বটতলা মোড়ে আসার পর নিখোঁজ হন।

এ ঘটনায় মিরাজের স্ত্রী সখী খাতুন ৫ জুন কুমারখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে এটি মামলায় রূপান্তরিত হয়। মামলায় আসামি করা হয় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের। এর মধ্যে পুলিশ তদন্ত করে হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে নিশ্চিত হয়।

পরে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয় ৭ জনকে। এদের মধ্যে বর্তমানে ৬ জন জেল হাজতে রয়েছে।

সম্প্রতি পুলিশ এই মামলার আসামি আলমগীরকে গ্রেফতার করে আদালত থেকে বুধবার রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে গড়াই নদীর মধ্যে লাশ পুঁতে রাখার জায়গা সম্পর্কে তথ্য দেন।

সেই তথ্যানুযায়ী বুধবার রাত ১০টার দিকে মিরাজের কঙ্কাল উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পুলিশ জানায়, পরীক্ষা-নিরিক্ষা ছাড়া এটি কার কঙ্কাল সে সম্পর্কে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।