গাজীপুরে বকেয়া বেতনের দাবিতে পোশ‍াক শ্রমিকদের বিক্ষোভ-ভাংচুর ও অবরোধ

গাজীপুর প্রতিনিধি:


h.jpgcd

মহানগরের বোর্ডবাজার কাতরা এলাকায় নন্দন অ্যাপারেলস কারখানার শ্রমিকরা বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ, ভাংচুর ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে শ্রমিকরা তাদের বিক্ষোভ শুরু করে।

পুলিশ ও শ্রমিকরা জানায়, গত মে ও জুন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে বোর্ডবাজার কাতরা এলাকায় নন্দন এ্যাপারেলস কারখানার শ্রমিকরা কারখানার জানালার কাঁচ, আসবাবপত্র ভাংচুর ও বিক্ষোভ করে। পরে শ্রমিকরা প্রায় আধা ঘণ্টা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করতে ফাঁকা গুলি ও গ্যাস নিক্ষেপ করে। পরে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নিয়ে কারখানার সামনে অবস্থান নেয়।

কারখানার শ্রমিক লাকী আক্তার ও আসমা আক্তার জানান, কোনো মাসের বেতন আন্দোলন ছাড়া পাওয়া যায় না। আন্দোলন করে বেতন আদায় করে নিতে হয়। গত মে ও বর্তমান জুন মাসের বেতন বোনাস দেওয়ার কথা থাকলেও তাদের তা দেওয়া হয়নি। যার কারণে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে শিল্প পুলিশ গিয়ে শ্রমিকদের গুলি করে ও গ্যাস নিক্ষেপ করে। এতে তাদের বেশ কিছু শ্রমিক আহত হন।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের এসপি মোঃ বেলায়েত হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, নন্দন অ্যাপারেলস পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বেতন আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) দেওয়ার কথা থাকলেও মালিক পক্ষের সঙ্গে কথা বলে আগামী রবিবার (১৯ জুন) তা দেওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু শ্রমিকরা হঠাৎ কারখানায় বিক্ষোভ, ভাংচুর ও ঢাকা- ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করতে ফাঁকা গুলি ও গ্যাস নিক্ষেপ করে। পরে শ্রমিকরা মহাসড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেয়। এতে কোনো শ্রমিক আহত হয়নি।