জামিন পেলেন মাহির কথিত স্বামী শাওন

1465145595

নিজস্ব প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর– চিত্র নায়িকা মাহিয়া মাহির করা মানহানির মামলায় তার কথিত স্বামী শাহরিয়ার ইসলাম শাওনের জামিন মঞ্জুর করেছেন ট্রাইব্যুনাল। শুনানি শেষে আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সাইবার ক্রাইম ট্রাইবুনালের বিচারক কেএমএম শামসুল আলম তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের মামলায় ১ লাখ টাকা মুসলেকায় তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এখন এই জামিননামা কারাগারে পৌঁছালে শাওনের মুক্তিতে আর কোনো বাধা থাকবে না বলে জানিয়েছেন তাঁর আইনজীবী বেলাল হোসেন। তিনি বলেন, শারমিন আক্তার নিপা ওরফে মাহির সঙ্গে শাওনের বিয়ে হয় বলে কাবিননামা রয়েছে। বিয়ের বিভিন্ন ছবি ফেসবুকসহ বিভিন্ন অনলাইন নিউজপোর্টালে কে বা কারা ছড়িয়ে দিয়েছে, তা শাওনের জানা নেই।

বেলাল হোসেন আরো বলেন, বিয়ের বিষয়ে সত্যতা জানাতে আদালতে কাবিননামা উপস্থাপন করা হয়েছে। একই সঙ্গে মাহিয়া মাহির বাবা-মা দুজনেই আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের বিষয়ে তাঁদের কোনো আপত্তি নেই বলে অঙ্গীকারনামা দেন। এ বিষয়ে তাঁরা পারিবারিকভাবে আপস, মীমাংসা করবেন বলে আদালতকে অবহিত করেন। পরে শুনানি শেষে আদালত শাওনের জামিন মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ মে মাহিয়া মাহির বিয়ে হয় সিলেটনিবাসী ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে। গত ২৭ মে বন্ধু শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে তার কিছু ছবি কয়েকটি অনলাইন নিউজপোর্টাল এবং ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। সেদিনই রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে শাওনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি।

পরে পুলিশ শাওনকে গ্রেপ্তার করে দুদিনের রিমান্ডে নেয়। ৩১ মে রিমান্ডশেষে শাওনকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন আদালত। সেদিন তার আইনজীবী বেলাল হোসেন আদালতে মাহি-শাওনের বিয়ের কাবিননামাসহ প্রয়োজনীয় সব কাগজ জমা দেন।

এদিকে মাহি বিয়েকে কেন্দ্র করে কোন গুঞ্জনকে তোয়াক্কা না করে ঈদের পরই হানিমুনে যাচ্ছেন তিনি। এরইমধ্য হানিমুনে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন মাহি। ঈদের পর বর পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে মধুচন্দ্রিমার উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্রে উড়াল দিবেন তিনি। টানা দুইমাস যুক্তরাষ্ট্রে থাকার সব প্রস্তুতিও প্রায় শেষ করেছেন মাহি-অপু দম্পতি।