নোয়াখালীতে সন্ত্রাসীর হামলায় এক যুবক নিহত , আহত আরও ৩

 

1466137393

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নে আসিফ উদ্দিন শান্ত (২১) নামের এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত হয় আরো তিনজন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে বটগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শান্ত বটগ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে।

নিহত শান্ত ওই ইউনিয়নের বটগ্রামের মুজিব মন্সী বাড়ির সাহাব উদ্দিনের ছেলে। ওই সময় আহত হয়েছে আরো তিনজন। তবে আহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

নিহতের মামা হাবীবুর রহমান জানান, বুধবার বিকালে ছোট ভাগিনা শাওন বাড়ির সামনে রাস্তার পাশে নোকিয়া মোবাইলে গেমস খেলছিল। ওই সময় রাস্তা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে এলাকার সন্ত্রাসী শাহেদসহ তিনজন যাচ্ছিল। শাওনকে দেখে মোটরসাইকেল থামিয়ে নাম ও বাড়ির নাম জিজ্ঞেস করে। পরে সন্ত্রাসী শাহেদ শাওনকে মিথ্যা কথা বলছিঁছ বলে মারধর করতে থাকে। পরে শাওন ভয়ে দৌড় দিয়ে মুজিবুর রহমানের বাড়িতে ঢুকে সন্ত্রাসী শাহেদ ও তার সহপাঠীরাও ওই বাড়িতে ঢুকে পড়ে। বাড়ির লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে সন্ত্রাসী শাহেদসহ অপরদেরকে ধাওয়া করে ও মারধর করে।

ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী শাহেদসহ অপর সন্ত্রাসী ৭/৮ জন বুধ রাত ১১টার দিকে প্রবেশ করে মুজিবুর রহমানের বাড়ির ২টি ঘর কুপিয়ে দিয়ে চলে যায়। পরে আবারও বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে শাহেদসহ ১২/১৫ জন সন্ত্রাসী মুজিব মুন্সীর বাড়িতে ঢুকে এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকে। এক পর্যায়ে ঘরের ভিতরে ঢুকে আমার ভাগিনা শান্তকে গুলি করে।

বাড়ির লোকজনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি গুলিতে আরো ৩ জন আহত হয়। পরে সন্ত্রাসীরা স্থানীয় লোকজনের ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যায়। শান্তকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

সোনাইমুড়ী থানার ওসি কাজী হানিফুল ইসলাম জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবার মামলা করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।