সাবেক এমপির জানাজায় অর্ধশত মোবাইল চুরি: বেকায়দায় মুসুল্লীরা

sabek m.p.,. rajjak-17-06-16 - small

জাহিদুল ইসলাম রিপন, কলাপাড়া প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে চোরের উপদ্রব আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় মুসুল্লীদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। আজ শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে প্রয়াত সাবেক সাংসদ আবদুর রাজ্জাক খানের নামাজে জানাজায় অংশ নেয়া মুসুল্লীদের কাছ থেকে প্রায় অর্ধশত মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়েছে সংঘবদ্ধ চোর দলের সদস্যরা। পবিত্র রমজান মাসের গত ক’দিনে মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসুল্লীদের কাছ থেকে নগদ ২৬ হাজার টাকা, অর্ধশত মোবাইল সেট, ছাতা ও জুতা চুরি ঘটনার পরও মসজিদ পরিচালনা কমিটি কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কলাপাড়া পৌরশহরের ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদটি থানার মাত্র ৫০ গজ সামনে অবস্থিত। এ দ্বিতল মসজিদটি আন্ধারমানিক নদীর তীরে অবস্থিত হওয়ায় শহরের অধিকাংশ চাকুরীজীবী, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, আইনজীবি সহ ধর্মপ্রান মুসুল্লীরা এ মসজিদে নামাজ আদায় করতে আসে।

মুসুল্লীরা জানান, মুসুল্লীর ছদ্মবেশে সংঘবদ্ধ চোরের দল নামাজরত অবস্থায় মুসুল্লীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, দামী মোবাইল সেট, ছাতা ও জুতা নিয়ে সটকে পড়ে। গত রবিবার দুপুরে মসজিদের পুকুর ঘাটে অজু করার সময় কাঁচা মাল ব্যবসায়ি চাঁন মিয়া গাজীর কাছ থেকে সংঘবদ্ধ চোর দলের সদস্যরা ২৬ হাজার টাকা সহ একটি মোবাইল সেট নিয়ে সটকে পড়েন। এনজিও থেকে চড়া সুদে টাকা এনে চাঁন মিয়া গাজী এখন পাগল প্রায়। এছাড়া আজ শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে প্রয়াত সাবেক সাংসদ আবদুর রাজ্জাক খানের নামাজে জানাজায় অংশ নেয়া মুসুল্লীদের কাছ থেকে প্রায় অর্ধশত মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়েছে সংঘবদ্ধ চোর দলের সদস্যরা।

কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও প্রথম আলো পত্রিকার কলাপাড়া প্রতিনিধি প্রভাষক নেছার উদ্দীন আহমেদ টিপু জানান, গত দু’দিন পূর্বে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ থেকে তারাবিহ নামাজ পড়ে বের হয়ে দেখেন তার ব্যবহৃত জুতাটি আর নেই। কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সদস্য হাফিজুর রহমান জানান, জানাজা পরার সময় তার পকেট থেকে দামী মোবাইল সেটটি নিয়ে যায় চোরের দল।

কলাপাড়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মতিয়ার রহমান হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, আবদুর রাজ্জাক খান সাহেবের নামাজে জানাজায় অংশ নেয়া মুসুল্লীদের নিকট থেকে গতকাল ৫০টি মোবাইল সেট চুরি করে নিয়েছে চোরের দল। এসময় তিনি কলাপাড়া হাসপাতালে কর্মরত প্যাথলজিষ্ট হাফিজ সহ কয়েকজন ভুক্তভোগীর নামও জানান।

কলাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দীন মাহমুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, যুবলীগ নীলগঞ্জ ইউপি’র সভাপতি শামিম খলিফার মোবাইল সেটটিও গতকাল জানাজার নামাজ পড়া অবস্থায় চুরি হয়েছে। এ বিষয়টি থানা পুলিশকে অবগত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা বলেন তিনি।

হৃদয়/এসএস