‘চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ পাক-ভারতের মধ্যে পরমাণু যুদ্ধ লেগে যেতে পারে যে কোন সময়’

india-pakistan-war_somoyerkonthosorআন্তর্জাতিক ডেস্ক – পাকিস্তান ও ভারত যেভাবে নিজেদের পারমাণবিক অস্ত্রভান্ডার বাড়িয়েই চলেছে, তাতে যে কোন দিন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দু’দেশের মধ্যে পরমাণু যুদ্ধ বাঁধতে পারে। সম্প্রতি এই আশঙ্কাই প্রকাশ করেছে খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সদ্য প্রকাশিত মার্কিন কংগ্রেসের এক রিপোর্টে এমন তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, যে হারে পাকিস্তান তাদের পরমাণু অস্ত্রভান্ডার বাড়াচ্ছে তাতে প্রথমেই পূর্ণ শক্তিতে পরমাণু হামলার নীতি গ্রহণ করা হয়েছে। খবর টাইমস অফ ইন্ডিয়ার

খবরে বলা হয়, পাকিস্তানের হাতে বর্তমানে ১১০টির বেশি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে বলে ‘সিআরএস’ নামের সদ্য প্রকাশিত ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে।

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্রভান্ডার বাড়ানোর মূল লক্ষ্যই হল ভারতের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার উপর আঘত হানা এবং তা ধ্বংস করা।রিপোর্টটি এমন এক সময়ে প্রকাশিত হয়েছে, যখন বিশ্বের ৪৮টি দেশকে নিয়ে গঠিত এনএসজি-তে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য ভারত ও পাকিস্তান সমানভাবে চেষ্টা চালাচ্ছে।

পর্যবেক্ষকদের আশঙ্কা, পাক সরকারের উপর যখন-তখন অভ্যুত্থানের ছায়া নেমে আসতে পারে। দেশের অস্থির রাজনৈতিক পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে সে সময় চুরি হয়ে যেতে পারে পরমাণু অস্ত্র ও প্রযুক্তি। যদিও, সেই আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান ও মার্কিন প্রশাসন।তবে, পরিস্থিতি যাই হোক না কেন ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে পরমাণু সংঘর্ষ বাঁধলে তার ফল যে ভয়ঙ্কর হবে, তা নিশ্চয় বলার অপেক্ষা রাখে না।