পুরোহিতকে হুমকির ঘটনায় রামকৃষ্ণ মিশনের নিরাপত্তা জোরদার

ram-krishno-misson-dhakaসময়ের কণ্ঠস্বর – পুরোহিতকে হত্যার হুমকি দেওয়ার পর রামকৃষ্ণ মিশনের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। মিশন এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি এলাকাটিকে কড়া নজরদারির মধ্যে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

আজ শুক্রবার রাজধানীর ওয়ারী জোনের উপ-পুলিশ (ডিসি) কমিশনার সৈয়দ নূরুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, আগের লাগোনো সিসি ক্যামেরার সঙ্গে নতুন ক্যামেরা বসানো হয়েছে। আর প্রধান গেট থেকে বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য।

সৈয়দ নূরুল ইসলাম বলেন, হুমকির ঘটনায় রামকৃষ্ণ মিশন কর্তৃপক্ষ ওয়ারী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রামকৃষ্ণ মিশনের নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। পাশাপাশি হত্যার হুমকি দিয়ে পাঠানো চিঠির বিষয়টিও তদন্ত করে দেখছে তারা।

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মিশনের প্রধান ফটকের সামনে পুলিশ ও আনসার দিয়ে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। একজন এসআইয়ের নেতৃত্বে ২০ জনের পুলিশ সদস্য রয়েছেন পুরো মিশন জুড়ে। সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা মনিটরিং করছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

স্বামী সেবাআনন্দ জানান, ওই ঘটনার পর তারা আতঙ্কিত। চলাচলেও এখন অনেক কিছু ভাবতে হচ্ছে। এই দেশে যার যার ধর্ম সে পালন করবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু হুমকি দিয়ে কি তা রোধ করা সম্ভব? আর যারা এ কাজ করছে তাদের তদন্তপূর্বক বের করে আইনের আওতায় আনতে তিনি জোর অনুরোধ করেছেন।

ঝিনাইদহে হিন্দু পুরোহিত ও পাবনায় একটি আশ্রমের সেবায়েতকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় সৃষ্ট আতঙ্কের মধ্যেই রামকৃষ্ণ মিশনের প্রধান পুরোহিতসহ মিশনের সবাইকে হত্যার হুমকি দিয়ে গত বুধবার সন্ধ্যায় চিঠিটি পাঠানো হয়। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ‘তোমরা হিন্দু। বাংলাদেশ একটি ইসলামী রাষ্ট্র। এ দেশে ধর্ম প্রচার করতে পারবে না। তোমরা ভারতে যাও। না হলে তোমাদের কুপিয়ে হত্যা করা হবে।’