রামকৃষ্ণ মিশনের ধর্মগুরুকে হুমকিতে মোদির উদ্বেগ

145245_1

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনের এক ধর্মগুরুকে হত্যার হুমকি নিয়ে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। শুক্রবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো এ তথ্য জানিয়েছে।

বিকাশ স্বরূপকে উদ্ধৃত করে ভারতীয় বার্তা সংস্থা আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রামকৃষ্ণ মিশনের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার পূর্ণ সহযোগিতা ও সুরক্ষার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

বিকাশ জানান, বিষয়টি নিয়ে ঢাকায় ভারতের হাইকমিশন বাংলাদেশ পুলিশ ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। রামকৃষ্ণ মিশনের সঙ্গেও আমাদের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। রামকৃষ্ণ মিশনের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ভারতীয় হাই কমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (কনস্যুলার) শুক্রবার সকালে সেখানে যান বলেও জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র।

চলতি মাসে পাবনা ও ঝিনাইদহে সন্ত্রাসী হামলায় দুই হিন্দু পুরোহিত খুন হওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ভারতীয় হাই কমিশনের কর্মকর্তারা। রামকৃষ্ণ মিশনের ধর্মগুরুকে হত্যার হুমকির বিষয়টি ভারত সরকার খুব গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে বলে টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়, মিশনের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্যক্তিগত যোগাযোগ থাকায় বিষয়টি গুরুত্ব পাচ্ছে। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার মিশনের ধর্মগুরুরা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে বার্তা পাঠিয়েছেন। মোদি তার অতিরিক্ত সচিব ভাস্কর খুলবেকে বিষয়টি দেখার দায়িত্ব দিয়েছেন বলেও খবর দিয়েছে ভারতীয় পত্রিকাটি।

এদিকে আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রামকৃষ্ণ মিশনের এক ধর্মগুরুকে হুমকির ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও উদ্বিগ্ন। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে ভারতীয় হাই কমিশনের মাধ্যমে ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে আশ্বস্ত করা হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি কায়দায় হামলার মধ্যে গত বুধবার সন্ধ্যায় আইএসের নামে চিঠি পাঠিয়ে ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনের এক গুরুকে ধর্মপ্রচারে নিষেধ করে চাপাতিতে কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। এ নিয়ে ওয়ারি থানায় একটি জিডি করেন ওই ধর্মগুরু।