আত্রাইয়ে রেলওয়ে যাত্রী ছাউনির কাজ বন্ধ থাকায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই প্রতিনিধি:


ng

নওগাঁর আত্রাইয়ের আহসানগঞ্জ রেলওয়ে প্লাট ফরমের যাত্রী ছাউনির সংস্কার কাজ বন্ধ থাকায় যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। সামান্ন বৃষ্টি হলে ঝরঝর করে পানি পড়ে সমগ্র প্লাটফর ভিজে যাওয়ায় যাত্রীদের অবস্থানের কোন ঠাই নেই। ফলে দুর্ভোগ আর দুর্দশার মধ্য দিয়েই এ স্টেশন থেকে ট্রেনযোগে চলাচল করতে হচ্ছে বিপুল সংখ্যক যাত্রীদের। জানা যায়, উপজেলার আহসানগঞ্জ রেলওয়ে প্লাটফরমের যাত্রী ছাউনি দীর্ঘদিন থেকে জরাজীর্ণ হয়ে রয়েছিল। সম্প্রতি বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক দৈনিকে এ সংক্রান্ত সংবাদও প্রকাশিত হয়। ফলে রেলওয়ের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ এ যাত্রী ছাউনি সংস্কারে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে দরপত্র আহবান করেন।

সে অনুযায়ী পাবনার ঈশ্বরদীর জনৈক ঠিকাদার কয়েকদিন পূর্বে তার লোকজন দিয়ে যাত্রী ছাউনির সংস্কার কাজ শুরু করেন। ছাউনির পুরাতন ও অকেজো টিনের স্থলে নতুন টিন লাগানোর জন্য পুরাতন টিন খুলে প্লাট ফরম ফাঁকা করে দেন। এদিকে যাত্রী ছাউনির এ সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়ম ও নিম্নমানের কাজের অভিযোগে স্থানীয় জনগণ গত সোমবার কাজটি বন্ধ করে দেন। সংস্কার কাজে নিম্নমানের মালামাল ব্যবহার, সরকারী কোন কাগজপত্র না থাকা এবং স্থানীয় রেলওয়ে কর্মকর্তা কর্মচারীদের অবগত না করে কাজ করার অভিযোগে এ কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়। এদিকে কাজ বন্ধের পরদিন ঠিকাদার কর্তৃপক্ষের যথাযথ কাগজপত্র ও কাজের শিডিউল আত্রাই রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের নিকট পৌঁছে দেন। শিডিউল প্রাপ্তির পরও প্লাটফরমের যাত্রী ছাউনির কাজ শুরু না হওয়ায় সাধারণ যাত্রীরা হতাশ হয়ে পড়েছেন।

ট্রেনযাত্রী মাসউদুর রহমান বলেন, যাত্রী ছাউনি যেভাবে ফাঁকা হয়ে রয়েছে তাতে রৌদ্র বৃষ্টি থেকে আমাদের বাঁচার উপায় নেই। আত্রাই রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার ছাইফুল ইসলাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, যারা শিডিউল না পেয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন। আমি তাদেরকে শিডিউল প্রাপ্তির কথা জানিয়েছি। তারা এখন পর্যন্ত শিডিউল দেখা বা কাজ শুরুর কথা বলেন নাই তাই কাজ বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে ওই কাজের ঠিকাদার পাবনার ঈশ্বরদীর সুলতান সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ক্ষমতা বলেই কাজটি শুরু করা হয়েছিল। কাজটি বন্ধ করে দিয়ে আমাকেও হয়রানি করা হয়েছে এবং যাত্রীদেরকেও দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।