ফালুজা মুক্ত করল ইরাকি বাহিনী: জনতার উল্লাস, ইরানের শুভেচ্ছা

4bk51d75fcafd87vbs_800C450


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইরাকের সেনাবাহিনী দেশটির আল-আনবার প্রদেশের অন্যতম শহর ফালুজা পুনর্দখলে নিয়েছে। ইরাকি প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-আবাদি বলেছেন, তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল বা দায়েশের কাছ থেকে ফালুজা মুক্ত করা হয়েছে। টেলিভিশনে দেয়া সংক্ষিপ্ত ভাষণে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা ফালুজা মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছিলাম এবং তা করেছি। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী ছোট একটি অংশ বাদে শহরের বেশির ভাগ অংশ নিয়ন্ত্রণে আছে। আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বাদবাকি অংশ নিয়ন্ত্রণে আসবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ফালুজা জাতির কাছে ফিরে এসেছে। পরবর্তী যুদ্ধক্ষেত্র হলো মসুল।’

২০১৪ সালে ফালুজার দখল নিয়েছিল আইএসআইএল। এরপর ধীরে ধীরে সংগঠনটি ইরাকের বিস্তীর্ণ অঞ্চল দখলে নেয়।

ফালুজ মুক্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজধানী বাগদাদসহ দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ রাস্তায় নেমে উল্লাস প্রকাশ করেন। তারা সরকার ও সেনাবাহিনীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দেন।

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ফালুজা শহর মুক্তিতে ইরাকের সরকার ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হোসেন জাবেরি আনসারি বলেছেন, “দায়েশ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ইরাকের সেনাবাহিনী, স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী ও উপজাতীয়দের বিজয়ে দেশটির সরকার ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ইরান মনে করে ঐক্য ও সংহতি বজায় রেখে ইরাক সরকার ভবিষ্যতেও বিজয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হবে।”

ইরাকের রাজধানী বাগদাদ থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে ফালুজা শহর অবস্থিত। চার সপ্তাহ আগে স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী ও উপজাতীয় যোদ্ধাদের সহযোগিতায় ফালুজাকে মুক্ত করার অভিযান শুরু করেছিল ইরাকি সেনাবাহিনী।