কালীগঞ্জে ইজি বাইক চালককে গলা কেটে হত্যা, আটক ১

trroat slitআলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি গাজীপুরের কালীগঞ্জে ইজি বাইকের এক চালককে ছুরিকাঘাত ও গলা কেটে হত্যা করেছে ছিনতাইকারীরা। কালীগঞ্জ থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে রোববার সকালে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তেন জন্য পাঠিয়েছেন। এ ঘটনায় সুলতান উদ্দিন (২৩) নামের এক ছিনতাইকারীকে আটক করা হয়েছে। সে উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের ধোলাসাধুখাঁ গ্রামের জয়নাল উদ্দিনের ছেলে।

নিহত চালকের নাম রবিউল ইসলাম (৩২)। তিনি উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের ধোলাসাধুখা গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে। তিনি কালীগঞ্জ পৌর এলাকার থানার সামনের স্ট্যান্ডে ভাড়ায় ইজি বাইক চালাতেন।

কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ আজিজুর রহমান জানান, শনিবার বিকেলে আটক সুলতান নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলায় একটি ইজি বাইক বিক্রি করতে যায়। এ সময় বিষয়টি সন্দেহ হলে স্থানীয়রা পলাশ থানা পুলিশে খবর দিয়ে তাকে সোপর্দ করেন। পরে পলাশ থানা কালীগঞ্জ থানাকে বিষয়টি জানালে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে আসে। এরই মধ্যে নিহত রবিউলের নিখোঁজের ব্যাপারে তার পরিবারের লোকজন থানায় অভিযোগ করেতে আসেন। আর এরই সূত্রধরে আটক সুলতানকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে।

ওই এসআই আটক সুলতানের বরাত দিয়ে আরো জানান, গত শুক্রবার (১৭ জুন) রাত ৮টার দিকে সে ও তার দুই সহযোগী মিলে কালীগঞ্জ থানার সামনে থেকে পলাশ উপজেলায় যাওয়ার কথা বলে ইজি বাইকটি ভাড়া নেয়। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কালীগঞ্জ-টঙ্গী-ঘোড়াশাল বাইপাস সড়কের ঘোনাপাড়া নামকস্থানে একটি জঙ্গলে তাকে উপর্যোপরি ছুরিকাঘাত ও গলা কেটে মৃত্যু নিশ্চিত করে ইজি বাইকটি নিয়ে যায়। তার জবানবন্দি অনুযায়ী শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ওই স্থান থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রোববার সকালে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলম চাঁদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বাকীদের আটকের ব্যাপারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।