‘ঈদে ভাড়া বাড়ালেই কঠোর ব্যবস্থা: ১৬টি পয়েন্টে স্বেচ্ছাসেবক মোতায়ন’

obaiful-kader-19-6-16

সময়ের কন্ঠস্বর: ‘ঈদ আসলেই পরিবহন মালিকরা ভাড়া বাড়িয়ে দেন। কিছু দিন আগে জ্বালানি তেলের দামের সঙ্গে আমরা ভাড়া সমন্বয় করে দিয়েছি। কাজেই কেউ ভাড়া বাড়ানোর চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে ‘চীনের সঙ্গে তিনটি মৈত্রী সেতুর সমঝোতা চুক্তি’ সই অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের ঘরমুখো মানুষের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে ঢাকার আশপাশের মহাসড়কের ১৬টি পয়েন্টে ১ হাজার স্বেচ্ছাসেবক মোতায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। অতিরিক্ত ভাড়া আদায়সহ অনিয়ম-অপকর্ম ঠেকাতে ঈদের সময় টার্মিনালগুলোতে মনিটরিং টিম কাজ করবে। ঈদুল ফিতর ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সবচেয়ে বড় উৎসব। দেশে এটি সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। তাই ঈদে ঘরমুখো মানুষের যাতায়াত যাতে নির্বিঘ্ন হয়, তার জন্য সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এম এ এন ছিদ্দিক, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামসহ ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতৃবন্দ ও বিআরটিসিসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।