যুদ্ধাপরাধ: জামালপুরের ৮ জনের রায় যে কোনো দিন

8012

সময়ের কণ্ঠস্বর- একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে অ্যাডভোকেট শামসুল আলমসহ জামালপুরের ৮ আসামির মামলার বিচারকাজ শেষ হয়েছে। যে কোনো দিন এ মামলার রায় ঘোষণা হবে।

রোববার প্রসিকিউশন ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ মামলা রায়ের জন্য অপেক্ষমান (সিএভি) রাখেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। আর আসামিদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী গাজী তামিম।

আট আসামি হলেন- অ্যাডভোকেট মো. শামসুল হক ওরফে ‘বদর ভাই’, শরীফ আহাম্মেদ ওরফে শরীফ হোসেন, মো. আশরাফ হোসেন, মো. আব্দুল মান্নান, মো. আব্দুল বারী, হারুন, মো. আবুল হাশেম ও এস এম ইউসুফ আলী।

এদের মধ্যে শামসুল ও ইউসুফ কারাগারে আছেন; বাকি ছয়জনকে পলাতক দেখিয়ে এ মামলার বিচার চলে।

যুদ্ধাপরাধের পাঁচ অভিযোগে গতবছর ২৬ অক্টোবর ট্রাইব্যুনাল এই আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন। এর আগে গত বছরের ২৯ এপ্রিল এ আট আসামির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল।

গত ২২ জুলাই পলাতক জামালপুরের ছয় রাজাকারকে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছিলেন ট্রাইব্যুনাল। এর আগে গত ১৯ এপ্রিল আট আসামির বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট পাঁচটি ঘটনায় আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করে প্রসিকিউশন।

আসামিদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধকালীন হত্যা, গণহত্যা, আটক, অপহরণ, নির্যাতন ও গুমের সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। গত বছরের ২৪ মার্চরাজধানীর ধানমন্ডিতে তদন্ত সংস্থার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আটজনের বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।