জোড়াশিশু মোহাম্মদ আলীর জটিল অস্ত্রোপচার কাল, কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত সরাসরি দেখানোর

strange-twinসময়ের কণ্ঠস্বরঃ অপূর্ণাঙ্গ জোড়াশিশু মোহাম্মদ আলীর অস্ত্রোপচার সোমবার (২০ জুন)। সাড়ে তিন মাস বয়েসি এ শিশুর জটিল এ অস্ত্রোপচার প্রজেক্টরের মাধ্যমে সরাসরি দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আগ্রহী যে কেউ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) উপস্থিত থেকে অস্ত্রোপচারের দৃশ্য সরাসরি দেখতে পারবে।

জনা গেছে  বাগেরহাট জেলার যাত্রাপুরের জাকারিয়া ও হীরামনি দম্পতির চতুর্থ সন্তান মোহাম্মদ আলীর জন্ম গত ৭ মার্চে। বাবা জাকারিয়া, মা হীরামনি। মোহাম্মদ আলী এ দম্পতির চতুর্থ সন্তান। জন্মের পর গত ১০ মার্চ শিশুটিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়। মোহাম্মদ আলী একটি পূর্ণাঙ্গ শিশু, কিন্তু তার উপর ভর করে আছে আরেকটি শিশুর পেটের নিচের অর্ধেকসহ শরীরের নিম্নাঙ্গ। উর্ধাঙ্গের মাথা, বুক এবং দুই হাত নেই। অর্থাৎ আংশিক বা অপূর্ণাঙ্গ। শিশুটি তার আংশিক অস্তিত্ব নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ শিশুর উপর ভর করে বেঁচে আছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় একে বলে প্যারাসাইটিক টুইন অর্থাৎ অপূর্ণাঙ্গ যমজ।’

সোমবার (২০ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় অস্ত্রোপচার শুরু হবে। এজন্য ১৮ সদস্যের মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। মেডিকেল টিমের নেতৃত্বে রয়েছেন বিএসএমএমইউ- এর শিশু সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. রুহুল আমিন।

অধ্যাপক ডা. মো. রুহুল আমিন জানান, অপারেশন থিয়েটারের বাইরে প্রোজেক্টর থাকবে। অপারেশনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত স্ক্রিনে দেখানো হবে। এই অপারেশনে দুই ঘণ্টা সময় লাগতে পারে বলে ধারণা করছেন এই চিকিৎসক।

মেডিকেলের শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের জন্য এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে আগ্রহী হলে অন্যরা অস্ত্রোপচারের দৃশ্য দেখতে পারবে। সবার জন্য উন্মুক্ত বলেও জানান তিনি। একই সঙ্গে শিশুটির সফল অস্ত্রোপচারে সবার দোয়া চেয়েছেন অধ্যাপক রুহুল আমিন।