ইয়াবাতেই মৃত্যু: অবশেষে ময়নাতদন্তে মৃতদেহেই মিলল ৫ প্যাকেট ইয়াবা !

death-by-yabaকক্সবাজার প্রতিনিধিঃ দিলদার মোহাম্মদ (১৫) নামে এক কিশোরের মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করে ইয়াবার ৫ প্যাকেট ইয়াবা উদ্ধার করেছেন কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসকরা। সে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের ফুলের ডেইল এলাকার ফরিদ আলমের ছেলে।

রোববার (১৯ জুন) দুপুরে মৃত দিলদারের ময়নাতদন্ত শেষে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসকরা এই চাঞ্চল্যকর তথ্য জানান।

আত্মীয় সুত্রে জানা যায় – প্রলোভন দেখিয়ে হ্নীলা ইউনিয়নের আলী আকবার ডেইল এলাকার গুরা মিয়ার ছেলে নুরুল আলম ও জানে আলম দিলদারকে ইয়াবা খাইয়ে পাচারের চেষ্টা করেছিল। কিন্তু কক্সবাজার নিয়ে তারা দিলদারের পেট থেকে কিছু ইয়াবা বের করতে পারলেও বেশ কিছু ইয়াবার পেটের ভিতরে গলে যায়। এতে বিষক্রিয়ায় দিলদারের তার মৃত্যু হয়। এসময় পাচারকারীরা তার লাশ রাস্তায় ফেলে দেয়।

কক্সবাজার সদর হাসপতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা সুলতান আহমদ সিরাজী জানান, শনিবার গভীর রাতে পুলিশের আনা একটি মৃতদেহ রবিবার সকালে ময়নাতদন্ত করা হয়। ওই মৃতদেহে পলিথিন মোড়ানো ৫টি ছোট্ট প্যাকেটে ইয়াবা পাওয়া যায়।

পুলিশ সুত্রে জানা যায় মেরিন ড্রাইভ সড়কের পাশ থেকে এ কিশোরের মৃতদেহটি শনাক্তের পর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আমরা লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে । পরিবারের লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে দিলদারের বাবা ফরিদ আলম জানান, ছেলের দাফন শেষে এব্যাপারে তিনি মামলা করবেন।