খবরে কী লেখা আছে, তা অধিকাংশ পাঠক ফেসবুকে শেয়ার করেন না পড়েই !

khobor na porei

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক – কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও ফ্রেঞ্চ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটের গবেষকেরা এ গবেষণা করেছেন। তাঁরা টুইটারে ২৮ লাখ শেয়ারের বিষয়টি নিয়ে বিশ্লেষণ করে দেখেছেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে শেয়ার করা ৫৯ শতাংশ লিংকে কেউ কখনো ক্লিক করে না।

এখন অধিকাংশ মানুষ পুরো খবর পড়ার ধৈর্য দেখান না, হয়তো বড়জোর খবরের সংক্ষেপটা পড়েন। এরপরই তা ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে শেয়ারকরেন। প্রতি ১০ জনে ৬ জনই খবর না পড়ে ফেসবুকে শেয়ার করেন বলে সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় দেখা গেছে।
গবেষকেরা দাবি করেছেন, তরুণসমাজের কাছে খবরের উৎস হিসেবে এখন টিভির চেয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের জনপ্রিয়তা বেশি। তবে খবরে কী লেখা আছে, তা না পড়েই৬০ শতাংশ পাঠক তা শেয়ার করে বসেন। না পড়ে খবর শেয়ার করার এ প্রবণতা রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক মতামতের যৌথ প্রতিফলন হিসেবে দেখা হচ্ছে।

গবেষক আরনড লেগট বলেন, পড়ার চেয়ে লেখা শেয়ার করতে পছন্দ করে মানুষ। এটাই বর্তমানকালের তথ্য ব্যবহারের আসল চিত্র। কোনো খবরে সারসংক্ষেপ বা সারসংক্ষেপের সারসংক্ষেপ থেকে মতামত বুঝে নেন ব্যবহারকারী। কষ্ট করে ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করেন না। তথ্যসূত্র: ওয়াশিংটন পোস্ট।