সংখ্যালঘুদের উপর চলমান হামলা, হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ৫ দফা দাবি নিয়ে চট্টগ্রামে মানব-বন্ধন

13499444_1058692340890722_1157409413_o

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: দেশব্যাপী চলমান সংখ্যালঘুদের উপর হামলা, হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদে “ঐক্যবদ্ধ সনাতনি সমাজ” এর ব্যানারে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১৭ জুন) বাংলাদেশের প্রায় ২৫টি সনাতনি সংগঠন, মঠ-মন্দির ও সর্বস্তরের জনসাধারণ একযোগে এই মানব-বন্ধন ও বিক্ষোভ সভা চট্টগ্রামের প্রেস ক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়।
শারদাঞ্জলি ফোরাম চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সভাপতি অজিত কুমার শীল এর সভাপতিত্বে ও উক্ত মানব-বন্ধন এর আহ্বায়ক পিয়াল শর্ম্মা এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উৎযাপন পরিষদ, কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এড. তপন কান্তি দাশ। এসময় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য বলেন, দেশে প্রতিদিনই সংখ্যালঘুদের উপর আক্রমণ হচ্ছে। বর্তমানে সংখ্যালঘুদের শুধু নাগরিক অধিকার ক্ষুন্ন হচ্ছে না বরং মানবাধিকার চরম বিপর্যয়ের মুখে।
এমতাবস্থায় আর চুপ করে বসে থাকার সময় নেই। তাই যার যার অবস্থান থেকে সচেতন ও প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
এছাড়া চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এর মাননীয় মেয়র জনাব আলহাজ্ব আজম নাসির উদ্দীন এর পক্ষ থেকে প্রতিনিধি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু যুব মহাজোট এর সভাপতি রিপন দাস শেখর, সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ এর সভাপতি অধ্যাপক কুশল বরণ চক্রবর্ত্তী, বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটি, কেন্দ্রিয় সংসদ এর সাংগঠনিক সম্পাদক অনুপম দেবনাথ পাভেলসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।
এসময় উত্তাল জনতা সড়ক প্রায় ৫ ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে। উক্ত মানব-বন্ধন থেকে ৩০ দিনের আল্টিমেটাম সহ ৫ দফা দাবি উত্থাপন করেন অজিত কুমার শীল মহোদয়।
আগামী ৩০ দিনের মধ্যে দাবি আদায় না হলে আরো বৃহত্তর কর্মসূচির ঘোষনা দেন তিনি।
সবশেষে উক্ত মানব-বন্ধন টি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।