`১৯২ টাকায় স্বাধীনতা বিক্রি করেছেন শেখ হাসিনা’

jagpa sovapoti sofiul

সময়ের কন্ঠস্বর: ‘এ দেশের মানুষ ও স্বাধীনতার মূল্য আছে। সেই বিবেচনায় ভারতকে শেখ হাসিনার ট্রানজিট দেওয়া উচিত হয়নি। এর মাধ্যমে ভারতের কাছে তিনি দেশের স্বাধীনতা ১৯২ টাকায় বিক্রি করেছেন।’ সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ছোট হলরুমে ‘কানেকটিভিটির নামে ভারতকে ট্রানজিট প্রদান: বাংলাদেশের বর্তমান ও ভবিষ্যত’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভাপতি শফিউ আলম প্রধান।

এসময় তিনি বলেন, `ভারতকে ট্রানজিট দিয়ে শেখ হাসিনা দেশের স্বাধীনতা ১৯২ টাকায় বিক্রি করেছেন। ট্রানজিটের নামে সরকার স্বাধীনতার হৃৎপিণ্ড ছিঁড়ে দিল্লির হাতে তুলে দিয়েছে। এর ফলে ভারত লাভবান হলেও বাংলাদেশ শোষণ ছাড়া আর কিছু পাবে না।’

ব্যারিস্টার হায়দার আলী বলেন, ‘দেশে যা কিছু হচ্ছে, ভারতের নির্দেশে হচ্ছে। ভারতের চাওয়ামাত্রই সরকার তাদের ট্রানজিট দিল। অথচ তিস্তা নদীর পানির হিস্যা আমরা এখনো পাইনি। এ জন্য সরকারও ভারতকে কিছু বলছে না।’

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক মো. মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মুস্তাফিজুর রহমান, বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মো. এজাজ হোসেন, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এস এম আমিনুর রহমান প্রমুখ।

আলোচনা সভায় অন্য বক্তারা বলেন, ভারতের প্রতি সরকারের নতজানু নীতির কারণে দেশের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাই এ সরকারের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তা না হলে কোনো একদিন দেশকে ভারতের অঙ্গরাজ্য হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হবে।