কারাফটকেই হেমায়েত বাহিনীর প্রধান ‘হেমায়েত হোসেন’কে গুলি করে হত্যা !

hemayetযশোর প্রতিনিধিঃ যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে সন্ত্রাসী হেমায়েত বাহিনীর প্রধান হেমায়েত হোসেনকে (৩০) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
সোমবার ইফতারের পর এ ঘটনা ঘটে। নিহত হেমায়েত শহরতলীর মণ্ডলগাতি এলাকায় জিন্নাহ ওরফে টেনা কসাইয়ের ছেলে এবং ওই এলাকার হেমায়েত বাহিনীর প্রধান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র মতে, হেমায়েত একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার নামে হত্যা, চাঁদাবাজি, বিস্ফোরক, পুলিশের উপর বোমা হামলাসহ ১৯টি মামলা রয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি জামিনে কারাগার থেকে মুক্তি পান। মুক্তি পেয়ে তিনি কারাফটকের সামনে ‘সুকতারা টি-স্টলে’ চা পান করছিলেন। এসময় সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে তিন থেকে চার রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যান। ফলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় হেমায়েতের। পরে তার মরদেহ উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন জানান, বিরোধী পক্ষের সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেমায়েত নিহত হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, হেমায়েতের মাথার ডান পাশে গুলি লেগে বাম পাশ দিয়ে বের হয়ে গেছে। এছাড়া একটি গুলি বাম পায়ের রানে লেগেছে। হাসপাতালে হেমায়েতকে আনা হলে রাত ৮টায় তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

গত ২০ এপ্রিল গভীর রাতে কোতোয়ালী থানা পুলিশ যশোরের সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান হেমায়েত আলিকে গ্রেপ্তার করে। তার নামে থানায় হত্যা, বোমাবাজিসহ অর্ধ ডজন মামলা রয়েছে।