কলাপাড়ায় মহাসড়ক ও সওজের জমিতে স্থাপনা তোলার হিড়িক, যান চলাচলে চরম ঝুঁকি

kolapara-=mhasorok-jomi-dokhol

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: কলাপাড়ায় শেখ কামাল সেতুর নিচে সড়ক ও জনপথের নিয়ন্ত্রনাধীন মহাসড়ক দখল করে তোলা হচ্ছে স্থাপনা। এক শ্রেণির প্রভাবশালীরা সওজের অধিগ্রহন করা এসব সড়ক ও সড়কের পাশের জমি দখল করে স্থাপনা তুলে ভাড়া দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। সড়ক ও জনপথ বিভাগের নাকের ডগায় যেন চলছে সওজের রাস্তাসহ অধিগ্রহন করা জমি দখলের হিড়িক চলছে।

কলাপাড়ায় শেখ কামাল সেতুর নিচের সড়কটির পুরোটাই দখল করে অর্ধশতাধিক স্থাপনা তোলা হয়েছে। এভাবে শুধু শেখ কামাল নয়। হাজিপুরে শেখ জামাল সেতুর নিচে রয়েছে বেশ কিছু স্থাপনা। মহিপুরে রয়েছে শতাধিক স্থাপনা। কিন্তু সংশ্লিস্টরা সবাই রয়েছেন চুপচাপ। মূল সড়কটি অর্ধেকটা এখন এসব অবৈধ স্থাপনার কারনে যানবাহন চলাচলে ব্যবহার করা যায় না।

এমনকি একবার অধিগ্রহনের টাকা তুলে নিয়েছে ওইসব লোকজন ফের ওই জমিতে স্থাপনা তুলে ব্যবসা-বাণিজ্য শুরু করেছে। কলাপাড়া হাসপাতালের সামনের স্থাপনা মালিকদের একদফা ক্ষতিপুরন দিয়ে তা অপসারন করা হয়েছিল। অথচ ফের ওইসব মালিকরা নতুন করে স্থাপনা তুলে ভাড়ায় খাটাচ্ছে কিংবা নিজেরা ব্যবসা চালু করছে।
ইতোপুর্বে ২০১৫ সালের ২১ অক্টোবর সাত দিনের সময়সীমা বেধে দিয়ে সওজ পটুয়াখালী বিভাগ এসব স্থাপনা উচ্ছেদে নোটিশ দেয়। উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ ফরিদ উদ্দিন স্বাক্ষরিত এ উচ্ছেদ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছিল কিন্তু কোন কাজ হয়নি। একটি স্থাপনাও অপসারন করা হয়নি। সওজের প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির পান্না জানান, শীঘ্রই এসব স্থাপনা অপসারনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কলাপাড়া ফেরিঘাট থেকে শেখ কামাল সেতুর সংযোগ সড়ক পর্যন্ত এসব স্থাপনা উচ্ছেদ করে সড়কটি যানবাহন চলাচলের জন্য নিরাপদ করা হোক এমন দাবী সকল মহলের।