ঈদের আগে সাংবাদিকদের বেতন বোনাস ও নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষণার দাবি

sanbadik

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- ঈদের আগে সাংবাদিকদের বেতন বোনাস ও নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন ও ঘোষণার দাবিতে সর্বাত্মক আন্দোলন শুরু করবে বিএফইউজে ও ডিইউজে। এই লক্ষ্যে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনে শরীক হওয়ার জন্য আহবান জানিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

সাংবাদিক নির্যাতন দিবস উপলক্ষে আজ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংগঠনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এ আহবান জানান।

ডিইউজের সভাপতি শাবান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও গণমাধ্যম বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরীর পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক ও সাবেক মহাসচিব আবুদল জলিল ভুইয়া।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও গণমাধ্যম বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহবান জানিয়ে বলেন, নিরাপত্তাহীনতা থাকলে সাংবাদিকদের কাজে বস্তুনিষ্ঠতা থাকে না ও গণতন্ত্র বিকশিত হয়না। আইনের শাসন সুনিশ্চিত করতে হলে সাংবাদিকদের নিরাপত্তার বিষয়টিও জরুরিভাবে দেখতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সাংবাদিকদের হত্যাকান্ডের বিচার না হওয়ায় সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতা বাধাগ্রস্ত হয়।

তিনি নিজেদের মধ্যে সুদৃঢ় ঐক্য অটুট রাখার আহবান জানিয়ে আরো বলেন, রুটি-রুজি ও পেশাগত অধিকার আদায়ে অশুভ চক্র যাতে আন্দোলন সংগ্রামে বাধাগ্রস্ত করতে না পারে সেদিকে সতর্ক ও সজাগ থাকতে হবে।

বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক বলেন, যে সব সংবাদপত্র সাংবাদিকদের ওয়েজ বোর্ড দেয় না তাদের বিরেুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। সরকারের কাছ থেকে সেইসব সংবাদপত্র যাতে কোন সুযোগ-সুবিধা না পায় সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে হবে।

আলোচনা সভায় ১৯৯২ সালের একুশ জুন সাংবাদিক নির্যাতনের তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ ও দোষীদের শাস্তি দাবি করেন। নেতৃবন্দ বলেন, জাতীয় পে-স্কেল ঘোষণার পর সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে সাংবাদিকদের বেতন-ভাতার যে বৈষম্য সৃষ্টি হয়েছে তা অবিলম্বে সমাধান করতে ঈদের আগে নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন করতে হবে।