ইফতারের আগমূহুর্ত দোয়া কবুলের উত্তম সময়

ইসলাম ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর – সারাদিন রোজা থাকার পর ইফতারের সময় হলে নানা আয়োজনে পরিবারের অনেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ইফতারের আগে ব্যস্ততার কারণে দোয়া কবুলের উত্তম সময় থেকে বঞ্চিত হন তারা। পবিত্র রমজান মাস রহমতের মাস। অথচ রোজা শেষে আল্লাহর দরবারে নতজানু হয়ে প্রার্থনা জানাতে ভুলে যান তারা।

শত ব্যস্ততার মাঝেও আল্লাহ তা’য়ালার কাছে প্রার্থনা জানাতে কোনো অবস্থাতেই ভুলে গেলে হবে না। এই পবিত্র মাসে বেশি বেশি আমল করুণ, ক্ষমা চান আল্লাহর দরবারে।

ইবনে উমর (রা.) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন,

كان رسول الله صلي الله عليه و سلم إذا أفطر قال: ذَهَبَ الظَمَأُ، وَابْتَلَّتِ العُرُوْقُ، وَثَبَتَ الأَجْرُ إِنْ شَاءَ اللهُ

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যখন ইফতার করতেন তখন (ইফতার সেরে) বলতেন— ‘পিপাসা নিবারিত হয়েছে, নিষিক্ত হয়েছে নালিগুলো, আর আল্লাহ চাহে তো পুরস্কারও নির্ধারিত হয়েছে।’ (আবু দাউদ : ২৩৭৫)

iftarইফতারের আগে অপেক্ষাকালীন সময় রাসুল (সা.) এই দোয়াটি পড়তেন:

اللّهُمَّ اِنِّيْ اَسْأَلُكَ بِرَحْمَتِكَ الَّتِيْ وَسِعَتْ كُلَّ شَيْءٍ أَنْ تَغْفِرَ لِيْ

(আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা বি রাহমাতিকাল্লাতি ওয়াসিয়াতকুল্লা শাইয়্যিন আনতাগফিরালি)