পুরোহিত হত্যার ঘটনায় শিবির নেতা আটক: আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী

jinaidaho-puruhit-kill

আরাফাতুজ্জামান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলী হত্যার ঘটনায় এনামূল হক নামের এক শিবির নেতাকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে আটককৃত এনামূলক হক ঝিনাইদহের অতিরিক্তি চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা জাহাঙ্গীর এর আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে। সোমবার গেল রাত ২ টার দিকে ঢাকার গাবতলী বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এনামূল হক সদর উপজেলার আড়মুখ গ্রামের ফজলুল হক জোয়ার্দ্দারের ছেলে। সে শিবিরের পৌর ২ নম্বর ওয়ার্ডের সেক্রেটারী।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ঝিনাইদহ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন। পুলিশ সুপার বলেন, গত ৭ জুন ঝিনাইদহ শহরের করাতি পাড়া গ্রামের পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলীকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে অভিযানে নামে পুলিশ এবং এর সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে।

অভিযানের অংশ হিসেবে গেল রাতে ঢাকার গাবতলী এলাকা থেকে এনামূলকে আটক করা হয়। পরে মঙ্গলবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন বলেন, শিবিরের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক তারা ঝিনাইদহের পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলীকে হত্যা করে। এ হত্যাকান্ডে আটককৃত এনামূলসহ শিবিরের আরও ৭ জন অংশ নেয়।

এর আগে ঝিনাইদহের বেলেখালে সমীর খাজা ও কালীগঞ্জে হোমিৎ চিকিৎসক হাফেজ আব্দুর রাজ্জাককেও শিবিরের কেন্দ্রীয় নির্দেশে হত্যা করা হয় এবং এসকল হত্যাকান্ডে আইএস বলে কোন সংগঠন নেই বলে দাবী করেন তিনি।