যে ৩ টি অনিয়মের জন্য প্রতিনিয়ত বাড়ছে আপনার হজম এবং অ্যাসিডিটি সমস্যা

cause-of-digestion-and-acidity-problemস্বাস্থ্য ডেস্কঃ

হজম সমস্যা এবং অ্যাসিডিটি বর্তমানে খুবই সাধারণ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। একটু খাবারের স্বাভাবিক নিয়মে উলটপালট হলেই শুরু হয়ে যায় হজমের সমস্যা এবং বাড়তে থাকে অ্যাসিডিটির জ্বালাপোড়া। সত্যি বলতে কি, এই অ্যাসিডিটি এবং হজম সমস্যা কিন্তু আপনার করা অনিয়মেই প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে। আপনি যতো অনিয়ম করবেন আপনার এই সমস্যাগুলো ততোই বাড়তে থাকবে এবং এক পর্যায়ে তা মারাত্মক আকার ধারণ করে বড় কোনো সমস্যার জন্ম দেবে। তাই সতর্ক হয়ে যান এখন থেকেই। অনিয়মগুলো দূর করুন আজ থেকে এবং সেই সাথে দূর করুন হজম ও অ্যাসিডিটির সমস্যা।

১) একসাথে অনেক স্টার্চ ও প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া
বার্গার, ফ্রাই, পাস্তা, মিটবল ইত্যাদি ধরণের খাবারগুলো যখন আমরা খাই তখন একই সাথে অনেকটা স্টার্চ এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া হয়ে যায়। প্রোটিন খুব ধিরে হজম হয়ে এবং স্টার্চ দ্রুত সুগারে পরিনত হয়ে যায়। আর এই দুটির কম্বিনেশনের এই তারতম্যের কারণেই হজমে সমস্যা এবং অ্যাসিডিটি শুরু হয়ে যায়। তাই এই ধরণের স্টার্চ ও প্রোটিন একই সাথে অনেকটা পরিমাণে থাকে এমন খাবার একটু এড়িয়ে চলাই ভালো।

২) খাবার খাওয়ার সাথে বরফ ঠাণ্ডা পানি পান করা
গরম লাগলে তা কাটাতে অনেকেই খাবারের মাঝে যে পানি পান করেন তার জন্য বেছে নিয়ে থাকেন বরফ দেয়া ঠাণ্ডা পানি বা বরফের মতো ঠাণ্ডা পানি। কিন্তু খাবারের সাথে খুব ঠাণ্ডা পানি পান করলে তা রক্তনালীর জন্য ক্ষতিকর এবং সেই সাথে খাবার হজমের পুরো প্রক্রিয়াকে এই ঠাণ্ডা পানি অনেক ধীর করে ফেলে। এছাড়াও ঠাণ্ডা পানি ফ্যাট খাবারকে শক্ত করে ফেলে যা হজমে সমস্যার জন্য দায়ী। সুতরাং খাবারের সাথে পানি যদি পান করতেই হয় তাহলে সাধারণ তাপমাত্রার পানি পান করবেন।

৩) খাবারের মাঝে অনেক বেশী পানি পান করা
যখন খাবার খাওয়া হয় তখন তা পেটে পৌঁছে পেটের হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড দ্বারা ভেঙে হজম হওয়া শুরু করে। কিন্তু আপনি যদি খাবারের মাঝে অনেক বেশী পানি পান করতে থাকেন তাহলে পেটে খাবার পৌঁছে পানির কারণে খাবার ভাঙার কাজটি অনেক ধীর হয়ে যায় এবং হজম হতে দেরি হয়। এতে পেট ফেঁপে যেতে থাকে এবং অ্যাসিডিটির সমস্যা দেখা দেয়। তাই খাবারের মাঝে যতোটা সম্ভব কম পানি পানের চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে পানি খাবার শুরুর প্রথমে এবং শেষে পান করবেন। খাবার খাওয়ার মাঝে পান করবেন না।