‘বিশেষ সুবিধায় ফ্ল্যাট-প্লট পাবেন না সংসদ সদস্যরা’

সময়ের কণ্ঠস্বর – সংসদ সদস্যরা (এমপি) বিশেষ সুবিধায় ফ্ল্যাট ও প্লট পাবেন না বলে জানিয়েছে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে বিশেষ ব্যবস্থায় সংসদ সদস্যদের ফ্ল্যাট ও প্লট বরাদ্দ দেওয়ার সংবাদ কোনোভাবেই সঠিক নয় এবং বিভ্রান্তিকর বলেও দাবি করেছে মন্ত্রণালয়টি। আজ বুধবার মন্ত্রণালয় থেকে এক ব্যাখ্যায় এসব কথা জানানো হয়।

সম্প্রতি জাতীয় সংসদে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেনের বক্তৃতার উদ্ধৃতি দিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় এমপিদের ফ্ল্যাট ও প্লট পাওয়াসংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশিত হয়।

২০ জুন সংসদে গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, “সংসদ সদস্যরা আমার কাছে জমি চাচ্ছেন, আমি মনে করি জমি না নিয়ে অ্যাপার্টমেন্ট নিন।” মন্ত্রীর এ প্রস্তাবে ‘নো নো’ বলে প্রতিবাদ করেন উপস্থিত সদসরা। পরে মন্ত্রী জানান, সংসদ সদস্যরা প্লট ও ফ্ল্যাট দুটোই পাবেন।

এই সংবাদ প্রকাশের পর তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ব্যাখ্যা পাঠায় গণমাধ্যমে।

গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার স ম গোলাম কিবরিয়া স্বাক্ষরিত ব্যাখ্যায় বলা হয়, “রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) গড়ে তোলা আবাসিক এলাকায় বর্তমানে কোনো প্লট বিক্রির জন্য অবশিষ্ট নেই। অন্যদিকে স্বল্প পরিমাণ জমিতে অধিক লোকের বসবাসের সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে উত্তরা তৃতীয় পর্বের ১৮ নম্বর সেক্টর, পূর্বাচল ও ঝিলমিল আবাসিক এলাকায় প্রায় এক লাখ ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হচ্ছে। এসব ফ্ল্যাট সর্বসাধারণের মধ্যে সহনীয় মূল্যে বিক্রি করা হবে।”

mp-songsodএতে বলা হয়, “ফ্ল্যাট বিক্রির ক্ষেত্রে সংসদ সদস্যগণের জন্য বিশেষ কোনো সুবিধা বা কোটা রাখা হয়নি। সকল শর্তপূরণ করে যে কোনো সংসদ সদস্য সাধারণ জনগণের মতোই এসব ফ্ল্যাট কিনতে পারবেন। যেহেতু এসব ফ্ল্যাট জনগণের মধ্যে বিক্রি করা হচ্ছে, সে হিসেবেই গণপূর্তমন্ত্রী সংসদ সদস্যগণকে ফ্ল্যাট কেনার জন্য বলেছেন। বিশেষ কোনো সুবিধা বা কোটার আওতায় তারা ফ্ল্যাট পাবেন না।”

রাজউকের অবিক্রীত আবাসিক প্লটও না থাকায় সংসদ সদস্যরা প্লট কেনার আগ্রহী হলেও তাদের জন্য কোনো প্লট বরাদ্দ দেওয়ার সুযোগ নেই জানিয়ে গৃহায়ণ মন্ত্রণালয় জানায়, “ভবিষ্যতে রাজউক কোনো আবাসিক এলাকার প্রকল্প গ্রহণ করলে সেখানে সাধারণ জনগণের মতো সংসদ সদস্যগণও আবেদন করতে পারবেন। শর্তাবলি পূরণ সাপেক্ষে তারা প্লট গ্রহণের সুযোগ পাবেন। সে ক্ষেত্রে সংসদ সদস্যদের জন্য বিশেষ কোনো সুবিধা রাখা হবে না।”

পূর্বাচল প্রকল্পের শর্তে ঢাকা শহরের আবাসিক ফ্ল্যাটের মালিকরা প্লটের জন্য আবেদন করার সুযোগ পেয়েছিলেন। ফলে ভবিষ্যতে আবাসিক প্লট প্রকল্পে অনুরূপ সুযোগ রাখা হলে তা শুধু সংসদ সদস্যদের জন্য নয়, সাধারণ জনগণও সে সুযোগ পাবেন বলে ব্যাখ্যায় জানিয়েছে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়।