পুলিশের সতর্কবার্তাঃ আকস্মিক ঈদযাত্রায় বিপদে পড়লে যা করবেন!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর – ইট পাথর আর যানযটের শহর ছেড়ে প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে আর কয়েকদিনের মধ্যেই ঢাকা ছাড়তে শুরু করবে মানুষ। ঈদে নিজ বাড়িতে যাওয়ার ঝক্কি ঝামেলা বছরে দুইবার করে পোহাতে হয় মানুষদের। টিকিট কাটা শুরু হয় এক সপ্তাহ আগে থেকেই সেই সঙ্গে যাত্রার দিনে ভোগান্তিতো আছেই।

কমকরে তিন চার ঘন্টা আগে যদি না পৌছানো যায় তাহলে নিজের জায়গাটাও যাবে অন্যের দখলে। হাতছাড়া করতে হবে কেবিন। ঝামেলার কি আর শেষ আছে। এত সব কিছুর পরও একটি আতংক মনের মধ্যে কাজ করে। সেটা হল অজ্ঞান পার্টি বা মলম পার্টি। যে কোন সময় বিপদে ফেলতে পারে এই অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। তাদের যে কোনো কৌশলের কাছে ধরাশায়ী হয়ে আপনাকে যেতে হতে পারে হাসপাতালে। সবকিছু হারিয়েও জীবন নিয়েও শঙ্কায় থাকতে হবে। সারাবছর অজ্ঞান পার্টি সক্রিয় থাকলেও ঈদকে সামনে রেখে বেপরোয়া হয়ে উঠে তারা। তাই চলার পথে সাবধান হতে হবে।

তাই নিরাপদ যাত্রায় পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে – ঈদযাত্রার সময় কাউকে অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টি বা প্রতারক চক্রের সদস্য বলে সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিক নিকটস্থ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করবেন। একই সঙ্গে কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটালে তাও পুলিশকে জানান। কয়েকটি নম্বরে ফোন করে সেবা নিতে পারেন।

আজ বৃহস্পতিবার পুলিশ সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা এ কে এম কামরুল আহছানের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জনসাধারণের প্রতি এ আহ্বান জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে হয়তো বাড়ি যাবেন। ট্রেনে, বাসে বা লঞ্চে। যাত্রাপথে অপরিচিত কোনো ব্যক্তির কাছ থেকে পানীয় বা খাবার গ্রহণ করবেন না। কাউকে অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টি বা প্রতারক চক্রের সদস্য সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিক নিকটস্থ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অবহিত করুন। কেউ এ ধরনের ঘটনার শিকার হলে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা নিন। কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী যাতে অমূলক ঘটনার গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে জনগণকে বিভ্রান্ত করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে না পারে, সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে পুলিশকে অবহিত করুন।’

molom-parti

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ফোন করে পুলিশের কাছ থেকে সুবিধা নিতে কয়েকটি নম্বর দেওয়া হয়েছে।

সেগুলো হলো : ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)-০১৭১৩৩৯৮৩১১, ৯৫১৪৪০০, ৯৫৫১১৮৮, ৯৫৫৯৯৩৩; র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ০১৭৭৭৭২০০২৯, ৭৯১৩১১৭; পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের কন্ট্রোল রুম ০১৭৬৯৬৯০০৩৩, ০১৭৬৯৬৯০০৩৪, ৯৫৬১৯৬৭, ৯৫৬০৬৬১। এ ছাড়া জেলা পুলিশ সুপার ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।