‘আ.লীগ ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে উন্নয়নের পথে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে’

সময়ের কণ্ঠস্বর – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে যাতে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করে, সেই পরিবেশ আমরা সৃষ্টি করছি। সে লক্ষ্যে আমরা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। সরকারও একই কর্মসূচি পালন করছে।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (আজ, ২৩ জুন) দশম জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনে সংসদে দেয়া অনির্ধারিত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী ওই কথা বলেন।

সকালে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকের শুরুতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতাবার্ষিকী উপলক্ষে অনির্ধারিত আলোচনার সূচনা করেন শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু। এরপরই প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেন।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, ‘কিছু তো থাকে, সবসময় ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে, সুরক্ষিত করেছে, আর্থ সামাজিক উন্নয়নের পথে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ।’

pm-hasinaতিনি আরও বলেন, ‘এদেশের মানুষ যতটুকু পেয়েছে আওয়ামী লীগ যখন সরকারে এসেছে তখনই পেয়েছে। তা ছাড়া সবসময় জনগণ বঞ্চিত হয়েছে। স্বাধীনতার পর মাত্র সাড়ে তিনবছর ক্ষমতায় বঙ্গবন্ধু এই দেশকে গড়ে তুলেছেন। আজকে আমরা আমাদের প্রবৃদ্ধি ৭ ভাগ অর্জিত হয়েছে বলি। ৭ ভাগ কিন্তু জাতির পিতার আমলেই প্রথম অর্জন করা সম্ভব হয়েছিল। এরপর আর পারেনি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যারা ক্ষমতায় এসেছিল, তারা বছরের পর বছর দেশ শাসন করেছে, দেশকে পিছিয়ে নেয়াই যেন ছিল তাদের একমাত্র লক্ষ্য।’

তিনি বলেন, ‘অধিকার আদায়ে আওয়ামী লীগ বার বার নেতৃত্ব দিয়ে গেছে। প্রত্যেক আন্দোলনে বিজয় লাভ করেছে এবং জনগণের ক্ষমতা জনগণের হাতে তুলে দিয়েছে।’

শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠার কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সেই আওয়ামী লীগই এই বাংলাদেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতা এনে নেয়। কাজেই আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বাংলার স্বাধীনতার সাথে একটা যোগসূত্র রয়েছে।