শরীয়তপুরে জাজিরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ

Shariatpur Jajira Pic-2 copy

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়োজিত পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডাঃ স্বপন কুমার ধরের বিরুদ্ধে অফিস চলাকালীন সময়ে তার ব্যাক্তিগত চেম্বারে বসে রোগী দেখার অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়, এই ডাক্তারের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলারও অনেক অভিযোগ রয়েছে।

এ সকল অভিযোগের প্রেক্ষিতে সরেজমিনে এক সপ্তাহ অনুসন্ধান করে দেখা গেছে, ডাঃ স্বপন কুমার ধর কর্তৃপক্ষের কাছে কোন অনুমতি না নিয়েই অফিস চলাকালীন সময়ে তার নিজস্ব চেম্বারে বসে প্রাইভেট প্র্যাকটিস চালিয়ে যাচ্ছেন।

সরকারী বিধি মোতাবেক সকল কর্মকর্তা এবং কর্মচারীকে সকাল সাড়ে ৮টার সময় অফিসে উপস্থিত থাকার বিধান থাকলেও ডাঃ স্বপন কুমার ধর কোন দিনই ১১টার আগে অফিসে আসেননি বলে রোগীদের অভিযোগ। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সকাল সাড়ে ৮টায় সময় আফিসে এসে ফিঙ্গার প্রিন্ট দিয়েই তিনি তার ব্যাক্তিগত চেম্বারে চলে যান। সেখানে গিয়ে রোগী দেখতে থাকেন।

এদিকে দূর দূরান্ত থেকে চিকিৎসা নিতে আসা অনেক গরীব অসহায় রোগী ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করে, অবশেষে তাকে না পেয়ে হতাশা হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

ডাঃ স্বপন কুমার ধর এর কাছে চিকিৎসা নিতে জাজিরার গরম বাজার থেকে আসা রোগী সূর্যবান বিবি (৬০) বলেন, আমি ডাঃ স্বপন কুমার ধর এর কাছে চিকিৎসা নিতে এসেছি। শুনেছি হাসপাতাল নাকি সাড়ে ৮টার সময় খোলে। সেজন্য আমি সাড়ে ৮টার আগে হাসপাতালে এসেছি। এসে দেখি স্বপন কুমার ধর তো দূরের কথা, কোন ডাক্তারই হাসপাতালে আসেননি। এখন বেলা ১১টার উপরে বাজে, এখনও ডাঃ স্বপন কুমার ধর এর খবর নেই। শুনেছি ডাঃ স্বপন কুমার ধর নাকি তার চেম্বারে বসে রোগী দেখছেন। আমি গরীব মানুষ, এতো টাকা বিজিট দিয়ে দেখানোর মতো সামর্থ আমার নেই। তাইতো সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছি।

জাজিরার নয়া বাজার থেকে আসা আরেক রোগী শাহানা আক্তার (২৬) বলেন, আমি আমার বাচ্চাকে নিয়ে এসেছি ডাঃ স্বপন কুমার ধরকে দেখাবো বলে। এখন বেলা ১১টার উপরে বাজে কিন্তু ডাঃ স্বপন কুমার ধর এর খবর নেই। আজ হাসপাতালে আসবে কিনা জানি না। শুনেছি তিনি জাজিরা বাজারে তার চেম্বারে বসে রোগী দেখছেন।

জাজিরার রূপবাবুর হাট থেকে চিকিৎসা নিতে আসা আরেক রোগী আকলিমা বেগম (২৩) বলেন, আমি ডাঃ স্বপন কুমার ধরকে দেখাবো বলে এসেছিলাম। ডাক্তার সাহেব তো এখনও আসলেন না। ভাবছিলাম তার চেম্বারে গিয়ে দেখাবো। কিন্তু এতো টাকা আমার কাছে নেই। আমার স্বামী গরীব ভ্যান চালক। তাই হাসপাতালে এসেছি বিনা টাকায় চিকিৎসা নিতে।

এ ব্যাপারে বুধবার সাড়ে ১১টার দিকে রোগীদের অভিযোগে ডাঃ স্বপন কুমার ধরের সাথে আলাপ করতে জাজিরা বাজারে তার চেম্বারের কাছে গেলে, তিনি উপস্থিত চেম্বারের রোগী রেখে পালিয়ে যান।
পরবর্তীতে ডাঃ স্বপন কুমার ধরের সাথে জাজিরা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাওয়া গেলে তিনি বলেন, আপনারা সাংবাদিকরা আমার এখানে কেন এসেছেন। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ডি.ডি স্যার আমার পক্ষে আছেন। তাছাড়া আমার স্যালকও একজন সাংবাদিক। আপনারা যা পারেন করেন।

এ ব্যাপারে শরীয়তপুর পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলামকে তাৎক্ষণিক ভাবে মোবাইলে বিষয়টি জানালে তিনি বলেন, ব্যাপারটি আমাকে জানিয়ে ভালো করেছেন। এ ব্যাপারে আমি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।