পুলিশ কাউকে ক্রসফায়ারে দেয় না আত্মরক্ষার জন্য এনকাউন্টারে যায়

 

 kros-fire

সময়ের কণ্ঠস্বর –   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, পুলিশ কাউকে ক্রসফায়ারে দেয় না, এটা সম্পূর্ণ একটা ভ্রান্ত ধারণা। আত্মরক্ষার জন্য প্রয়োজনে পুলিশ বাহিনীকে এনকাউন্টারে যেতে হয়। রাজধানীতে এক মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশ কখনো ক্রসফায়ার করে না। তাদের কাজ হচ্ছে, আসামিদের ধরে আইনে সোপর্দ করা। এনকাউন্টারে যেতে বাধ্য হলে তখন দুই একজন অপরাধীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে, অনেক সময় পুলিশ সদস্যরাও আহত হন।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আসন্ন ঈদ-উল ফিতরে ছিনতাইকারী, অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টির কোনো দৌরাত্ম্য থাকবে না। ইতোমধ্যে দুই শতাধিক অজ্ঞান পার্টির সদস্যকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, ঈদকে সামনে রেখে ২৯ জুন থেকে ঢাকার টার্মিনালগুলোতে বিশেষ নিরাপত্তা জোরদার করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর গাবতলি বাস টার্মিনালে বাস-ট্রাক ওনার্স এসোসিয়েশন আয়োজিত, ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, এবারের ঈদে অজ্ঞান পার্টি , মলম পার্টি বা ছিনতাইকারীদের কোনো ধরনের অপতৎপরতা সহ্য করা হবে না।

প্রয়োজনে এসব মোকাবিলা করতে পুলিশ সদস্যদেরকে গুলি ছোঁড়ার নির্দেশ দেন তিনি। এছাড়াও যেকোন ধরনের যানজট এড়াতে ও টিকিট কালোবাজারি রুখতে তিনি বাস মালিক ও শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানান।