সাবেক সচিব রণজিৎ বিশ্বাসের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির গভীর শোক

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব ও কলামিস্ট, ক্রীড়া লেখক রণজিৎ বিশ্বাস আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের সার্কিট হাউসে আকস্মিকভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পরলোক গমন করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজের একটি কক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার বিকালে রণজিৎ বিশ্বাসকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেন, বিকালে সার্কিট হাউজের একটি কক্ষে একা শুয়ে ছিলেন রণজিৎ বিশ্বাস । একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তার পরিচিত লোকজন ডাকতে এলে ভেতর থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে দরজা ভেঙে রণজিত বিশ্বাসকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

ronojit-bissasওই কক্ষে বমি দেখা গেছে জানিয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘চিকিৎসকরা বলেছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা গেছেন।’

তার মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। উচ্চপদস্থ সাবেক এই কর্মকর্তার মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুর খবর শুনে তার আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাক্সক্ষী, দীর্ঘদিনের বন্ধু ও সহকর্মীরা মুষড়ে পড়েন।

সাবেক সচিব রনজিত বিশ্বাসের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব রনজিত বিশ্বাসের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
এক শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি প্রয়াতের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
আবদুল হামিদ বলেন, রনজিত বিশ্বাস শুধু একজন দক্ষ সরকারি কর্মকর্তাই ছিলেন না, তিনি একজন খ্যাতিমান লেখকও ছিলেন।

সাবেক সচিব রণজিৎ বিশ্বাসের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব ড. রণজিৎ বিশ্বাসের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
এক শোক বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দীর্ঘ কর্মজীবনে রণজিৎ বিশ্বাস অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে অর্পিত দায়িত্ব পালন করেছেন এবং দেশের উন্নয়নে অবদান রেখেছেন।
শেখ হাসিনা প্রয়াত রণজিৎ বিশ্বাসের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
রনজিৎ বিশ্বাস আজ বিকেলে চট্টগ্রামে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

উল্লেখ্য রণজিৎ বিশ্বাস পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বুধবার রাতে চট্টগ্রাম এসে সার্কিট হাউজ উঠেছিলেন।

১৯৫৬ সালের ১ মে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন রনজিৎ কুমার বিশ্বাস। ১৯৮১ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি তথ্য কর্মকর্তা হিসেবে সরকারি চাকরিতে যোগ দেন রণজিৎ। প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিবের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

এর আগে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ২০১১ সালের ১৪ মার্চ সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিবের দায়িত্ব পাওয়ার পর একই বছরের ১০ অক্টোবর একই মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান।

২০১৩ সালের ২৫ মার্চ সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হন রণজিৎ। গত বছরের ২৭ এপ্রিল অবসরে যাওয়ার দুইদিন আগে রণজিৎ বিশ্বাস জ্যেষ্ঠ সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান।