প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ২য় দফায় ত্রান সহায়তা যাচ্ছে ভূমিকম্পে লন্ডভন্ড নেপালে

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ শক্তিশালী ভূমিকম্পে লন্ডভন্ড হিমালয় কন্যা নেপালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী মানবিক সহায়তা (ত্রাণ) হিসেবে ক্ষতিগ্রস্ত নাগরিকদের জন্য দিনাজপুর জেলা থেকে নেপালে চাল প্রেরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ জুন) বিকেল ৪টায় দিনাজপুর সদরের এলএসডি খাদ্য গুদাম থেকে চাল প্রেরণের কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম।

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের পরিচালনায় বাংলাদেশের স্থলবন্দর পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা দিয়ে ভারত হয়ে নেপালে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত নেপালিদের ত্রাণ সহায়তা হিসেবে দ্বিতীয় দফায় ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল প্রেরণের সিদ্ধান্ত হয়।

nepalদিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবু রায়হান মিঞা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের পরিচালক গিয়াস উদ্দীন আহমেদ, দিনাজপুর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. আব্দুল কাদির ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুর রহমান।

দিনাজপুর সদরের পুলহাট এলএসডি গুদাম থেকে সাড়ে ৫ হাজার ও পঞ্চগড় এলএসডি সরকারি খাদ্য গুদাম থেকে সাড়ে ৪ হাজার মেট্রিক টন চাল সড়ক পথে ট্রাকে করে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে নেপালে আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের জুন মাসে ক্ষতিগ্রস্ত নেপালিদের ত্রাণ সহায়তা হিসেবে ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল ও দুই ট্রাক বিশুদ্ধ পানি বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে পাঠানো হয়েছিল।

রিখটার স্কেলে ওই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮। এতে নেপাল, ভারত ও চীনে নিহত হয়েছে এক হাজার দুই শতাধিক মানুষ। নেপালে ৮০ বছরের বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প এটি।