দেশের বাজারে আবারও বাড়লো স্বর্ণের দাম!

সময়ের কণ্ঠস্বর – আবারও বাড়ল স্বর্ণের দাম। এ নিয়ে চলতি বছর এ পর্যন্ত সাত বার দেশের বাজারে বেড়েছে স্বর্ণের দাম। সর্বশেষ গত ১৬ জুন স্বর্ণের দাম প্রতি ভরিতে ১২২৫ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। যা ১৮ জুন থেকে কার্যকর হয়। আর এক সপ্তাহ পার হতেই আবারও বাড়ানো হলো স্বর্ণের দাম।

বিশ্ব বাজারের সঙ্গে সম্মন্বয় রেখে দেশের বাজারে স্বর্ণের মূল্য নির্ধারণ করে বাজুস। নতুন দাম অনুযায়ী, ভরি প্রতি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ২২৪ টাকা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

আজ শনিবার বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি (বাজুস) নতুন এই দর নির্ধারণ করে। রোববার (২৬ জুন) থেকে সারাদেশে এ দর কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে সংগঠনটি।

jasus-skবাজুস জানায়, নতুন দাম অনুযায়ী ভরি প্রতি সোনার দাম সর্বনিম্ন ৯৯১ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ২২৪ টাকা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এর মধ্যে প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট সোনার দর নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৮ হাজার ৩৪৭ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৬ হাজার ১৮৯ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট ৩৯ হাজার ৫৯৯ টাকা। এ ছাড়াও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি সোনার দাম ২৭ হাজার ৫২৭ টাকা। আর প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম ১ হাজার ২২৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

gold-high-prizeনতুন দর অনুযায়ী প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেট স্বর্ণের দাম বেড়েছে ১ হাজার ১২২ টাকা, ২১ ক্যারেট স্বর্ণের দাম বেড়েছে ১ হাজার ১৬৭ টাকা এবং ১৮ ক্যারেটে বেড়েছে ৯৯১ টাকা। এছাড়াও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম বেড়েছে ৭০০ টাকা। আর প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম ৫৮ টাকা বেড়েছে।

তবে আজ শনিবার (২৫ জুন) পর্যন্ত ভরি প্রতি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট স্বর্ণ ৪৭ হাজার ১২২ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৫ হাজার ২৩ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট ৩৮ হাজার ৬০৭ টাকা। এ ছাড়াও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ২৬ হাজার ৮২৭ টাকা। আর প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা দরে বিক্রি হবে।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) সভাপতি কাজী সিরাজুল ইসলাম জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে দামের সঙ্গে দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম ওঠানামা করে। আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ার পর আমরা এক সপ্তাহ অপেক্ষা করেছি, দেখলাম কমছে না। তাই বিশ্ব বাজারের সঙ্গে সম্মন্বয় করতে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাজুস।