সুন্দরবনের বনজ সম্পদ আহরণের অনুমতি পেয়েছে বনজীবীরা

3847396647_f9e978a9ed_o

বাগেরহাট প্রতিনিধি: আজ থেকে পূর্ব সুন্দরবনে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন বনজীবীরা। প্রায় দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা শেষে আজ রোববার থেকে সুন্দরবনে বনজীবীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে বন বিভাগ।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, বার বার আগুন লাগার কারণে পূর্ব সুন্দরবনে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। মানবিক দিক বিবেচনায় আজ থেকে বনজীবীদের জন্য নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে। তারা আগের মতো নির্দিষ্ট রাজস্ব প্রদান করে বন বিভাগের অনুমতি নিয়ে বনে প্রবেশ এবং মাছ শিকার ও বনজ সম্পদ আহরণ করতে পারবেন।

তবে সুন্দরবনের ডলফিনের অভয়াশ্রম এবং মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হিসেবে মাছ ধরতে নিষেধাজ্ঞা থাকা নদী ও খালগুলোতে মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ থাকছে। এছাড়া আগুনে পুড়ে যাওয়া পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের ২৫ নম্বর কম্পার্টমেন্ট একালাতেও প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি থাকছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এক মাসের ব্যবধানে চার বার আগুনের ঘটনায় ‘বিশেষ সতর্কতা’ হিসেবে গত ২৯ এপ্রিল সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ এলাকায় (চাঁদপাই ও শরণখোলা রেঞ্জে) দেশি-বিদেশি পর্যটক বাদে বনজীবীসহ সাধারণের সব ধরণের প্রবেশ ও পাস-পারমিট দেওয়া অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয় বন বিভাগ।

সর্বশেষ ২৭ এপ্রিল ধানসাগর স্টেশনের তুলাতুলী এলাকায় আবারও আগুন লাগে। যাতে পুড়ে যায় বনের ৩ একরের বেশি জায়গার গাছ-পালা ও লতা-গুল্ম। এক মাসের চারবার সুন্দরবনে আগুন লাগার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাপক সমালোচনার মুখে ২৯ এপ্রিল থেকে বন বিভাগ পূর্ব সুন্দরবনে পর্যটক বাদে সব বনজীবীদের প্রবেশ অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়।