ঈদের ছুটিতেও খোলা থাকবে এটিএম বুথ, পর্যাপ্ত টাকা রাখার নির্দেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর – পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে ৯ দিনের লম্বা ছুটি থাকছে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। সরকারি সব প্রতিষ্ঠানের মতই দেশের সবগুলো ব্যাংকই ঈদ উপলক্ষে বন্ধ থাকবে। এ সময়ে ব্যাংকের সঙ্গে নগদ টাকার লেনদেনের একটাই মাত্র রাস্তা, আর সেটি হচ্ছে এটিএম বুথ।

আর তাই ঈদকে ঘিরে ছুটিতে থাকা গ্রাহকদের সেবা নিশ্চিত করতে দেশের প্রতিটি ব্যাংকের এটিএম (অটোমেটেড টেলার মেশিন) বুথ সার্বক্ষণিক চালু রেখে নগদ টাকার সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর পাশাপাশি এটিএম ও পয়েন্ট অব সেল (পিওএস) নেটওয়ার্ক সার্বক্ষণিক সচল থাকার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

আজ সোমবার দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে পাঠিয়েছে।

এতে বলা হয়, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কেনাকাটা ও উৎসবকালীন ব্যাংকের শাখা বন্ধ থাকায় গ্রাহকরা অধিকহারে এটিএম বুথ, পয়েন্ট অব সেল এবং ই-পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে লেনদেন সম্পন্ন করে।

atm-taka

এসব কার্ডভিত্তিক ইলেকট্রনিক লেনদেনে গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য ব্যাংকগুলোকে ৫টি পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এগুলো হলো এটিএম বুথে পর্যাপ্ত নগদ টাকা সরবরাহ, এটিএম ও পিওএসে সার্বক্ষণিক নেটওয়ার্ক চালু রাখা, বন্ধ বা অচল এটিএম বুথের সামনে নোটিশ টাঙানোর ব্যবস্থা করা, কোনো ব্যাংকের সব এটিএম ও পিওএস সেবা অনিবার্য কারণে বন্ধ থাকলে তাৎক্ষণিকভাবে গ্রাহকদের অবহিত করা এবং লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনো অবস্থাতেই যেন গ্রাহকরা হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টি নিশ্চিত করা।

এর আগে গত সপ্তাহে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কারেন্সি ম্যানেজম্যান্ট বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত আরেকটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এতে বলা হয়েছিল, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আগামী ১ জুলাই থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত দেশের ব্যাংকগুলোতে ছুটি ঘোষিত রয়েছে। ছুটিকালীন গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন আর্থিক লেনদেনের স্বার্থে এটিএম বুথগুলোতে পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহের ব্যবস্থাসহ এটিএম বুথগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আপনাদের পরামর্শ দেওয়া হলো।