পুতিনের কাছে চিঠি দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন এরদোগান

4bk6ca61b6d3c19dly_800C450


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান শেষ পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। সিরিয়ার আকাশসীমায় রুশ বোমারু বিমান ভূপাতিত করার ঘটনায় এরদোগান ক্ষমা চাইলেন।

গত বছরের ২৪ নভেম্বর বিমান ভূপাতিত করার ঘটনায় দু দেশের মধ্যে সম্পর্কের চরম অবনতি ঘটেছিল। তবে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে তুরস্কের বিভিন্ন মাধ্যমে রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের ইঙ্গিত দেয়া হচ্ছিল।

পুতিনের কাছে এরদোগানের ক্ষমা চাওয়া প্রসঙ্গে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ এক বিবৃতিতে বলেছেন, “প্রেসিডেন্ট পুতিন এরদোগানের কাছ থেকে একটি চিঠি পেয়েছেন যাতে তুর্কি নেতা রুশ সামরিক বিমান ভূপাতিত করা নিয়ে সৃষ্ট জটিল অবস্থা নিরসনের ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন। ওই বার্তায় এরদোগান রুশ পাইলটের পরিবারের প্রতি সহানুভূতি ও গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন এবং ‘দুঃখিত’ বলেছেন।”

ক্রেমলিনের বিবৃতি অনুসারে এরদোগান আরো বলেছেন, দু দেশের মধ্যে ঐহিত্যবাহী বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠার জন্য তিনি সবকিছুই করতে তৈরি রয়েছেন। এরদোগানের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন এ চিঠি পাঠানোর কথা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এরদোগান তার চিঠিতে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও যৌথভাবে আঞ্চলিক সমস্যার সমাধান এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন।

ইব্রাহিম কালিন আরো বলেন, “আর দেরি না করে সম্পর্কোন্নয়নের জন্য তুরস্ক ও রাশিয়া প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সম্মত হয়েছে।”