গরুর মাংস সরবরাহের অভিযোগে খাওয়ানো হলো গোবর

dc-Coverআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে গরুর মাংস সরবরাহের অভিযোগে ‘গরু রক্ষা’ দলের নেতা কর্মীরা দুইজনকে গোবর, মুত্র খেতে বাধ্য করেছে। এ ছাড়া শারীরিকভাবে প্রহারেরও ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়, নির্যাতনের শিকার ওই দুইজনের নাম রিজওয়ান ও মুক্তার। ওই দুইজনকে লাঞ্ছিত করার সময় ভিডিও ধারণ করলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়ে যায়।

‘গরু রক্ষা’ দলের সভাপতি ধর্মেন্দ্র জয়দেব ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, দলের স্বেচ্ছাসেবকেরা সতর্ক ছিল। মিওয়াত থেকে দিল্লি যাওয়ার পথে ওই দুইজনের গাড়ি ধাওয়া করে তাদের কাছ থেকে ৭০০ কেজি মাংস উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আমরা বাদাপুর সীমান্তের কাছে গেলে তাদের ধরতে সক্ষম হই। তাদের ৭ কি.মি ধাওয়া করে আমাদের স্বেচ্ছাসেবকরা। তাদের আটকের পর আমরা শিক্ষা দিতে গরুর গোবর খাওয়াই এবং তাদের পবিত্র করি।’

ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, তাদের পাকড়াও করার সময় ভক্তরা ‘জয় শ্রী রাম, গরু মাতা জি কি জয়’ বলে চিৎকার করতে থাকে।
মারধরের পর তাদের থানায় সোপর্দ করা হয়। তাদের পরবর্তীতে ফরিদাবাদ থানায় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পুলিশ অভিযুক্ত দুই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে গরু হত্যার আইনের আওতায় অভিযোগ গ্রহণ করে।

সরাই খাওয়াজা থানার পুলিশ কর্মকর্তা অনিল কুমার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গরুর মাংস সরবরাহকারী ওই গাড়ির চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিচারিক হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তাদের গাড়ির ভেতরেও গরুর মাংস পাওয়া গেছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।