কটিয়াদীতে লোডশেডিংয়ের নামে বিদ্যুৎতের নির্যাতন

1429853081

ছাইদুর রহমান নাঈম, কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ)থেকে: কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে লোডশেডিংয়ের নামে বিদ্যুৎত এর নির্যাতনে অতিষ্ট উপজেলাবাসী। বিদ্যুৎত সেবার পরিবর্তে এখন গ্রাহককে নির্যাতন সহ্য করতে হচ্ছে। দীর্ঘ দিন যাবত এ অবস্থা চলে আসলেও এর কোন প্রতিকার মিলছেনা। মুসলমানদের ইবাদত বন্দেগীর মাস মহে রমজানেও অসহনীয় লোডশেডিং চলছে। তারাবির নামাজ ও সেহরির সময় বিদ্যুৎত নিয়মিত থাকেনা। ফলে মুসল্লী ও রোজাদার দের কষ্টের অন্ত থাকেনা।

সুত্র জানায়, কটিয়াদী পল্লী বিদ্যুৎত জোনাল অফিসের আওতাধীন কটিয়াদীসহ ১৮৬ টি গ্রামে অসহনীয় লোডশেডিং চলায় অবর্ননীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। কটিয়াদী জোনের আওতায় কটিয়াদী,নিকলী,অষ্টগ্রাম এবং আংশিক কিশোরগঞ্জ বাজিতপুর ও পাকুন্দিয়া উপজেলার প্রায় ৫০ হাজার গ্রাহক চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। এ নাজুক পরিস্থিতিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নির্বিকার দেখে সাধারণ মানুষের মনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বিদ্যুৎত এই থাকে, এই নেই। দীর্ঘক্ষণ পরে যেই আসে, মুহুর্তের মধ্যেই চলে যায়। আর নিয়মনীতির কোন বালাই নেই।

একাধিক গ্রাহক জানান, কটিয়াদীতে বিদ্যুৎত এর লোডশেডিং এক স্থায়ী যন্ত্রনার নাম। এই যন্ত্রনা ও অত্যাচারে কাহিল উপজেলার মানুষগুলো। একদিকে অসহনীয় লোডশেডিং অন্যদিকে বিল নিয়েও চলে ভুতুড়ে কাণ্ড। পরিশোধিত বিল পুনরায় নতুন বিলের সঙ্গে যোগ করে, বিলে ভুয়া ইউনিট সংখ্যা যোগ করে গ্রাহকদের অযথা হয়রানি ও মানসিকভাবে যন্ত্রনা দেয়ার বিস্তর অভিযোগও রয়েছে।

এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুৎত এর ডিজিএমের বক্তব্য নিতে চাইলে একাধিকবার ফোন করলেও রিসিভ করেননি।