আলমডাঙ্গায় যুবলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত-২

মেহেদী হাসান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলা শহরে দারুস সালাম মাঠে ইফতার বন্টন করাকে কেন্দ্র করে যুবলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী তৌফিক (২৭) ও বিএম নাহিদ (২৫) আহত হয়েছে। এ সময় যুবলীগ নেতার বাড়ী সহ তিনটি বাড়ী ভাঙচুর করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

songhorsho

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইফতার বন্টন করার সময় যুবলীগের দু-গ্রুপের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রাতে আলমডাঙ্গা সাবেক পৌর কাউন্সিলর শরিফুল ইসলাম রিফাত, সোহেল রানা ও পলাশ সহ ১৪/১৫ জন যুবলীগ নেতা-কর্মী উপজেলা যুবলীগ যুগ্ন আহবায়ক সাজ্জাদুল ইসলাম, বিল্লাল মাষ্টার সহ ৩টি বাড়িতে ভাঙচুর করে ব্যপক ক্ষতি সাধন করে। এ সময় যুবলীগ কর্মী তৌফিক ও বিএম নাহিদকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে আলমডাঙ্গার থানার নবাগত ওসি আকরাম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

যুবলীগ যুগ্ন আহবায়ক সাজ্জাদুল ইসলাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, সাবেক পৌর কাউন্সিলর শরিফুল ইসলাম রিফাত, সোহেল রানা ও পলাশ সহ ১৪/১৫ জন ইফতার মাহফিল পন্ড করার জন্য এ ঘটনা ঘটিয়েছে। দোষিদের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবী করেন তিনি।  আলমডাঙ্গার থানার নবাগত ওসি আকরাম হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, অভিযোগ এলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।