পশ্চিমাঞ্চল রেলের পাকশী বিভাগের ৮টি রুটে ঈদ স্পেশাল ট্রেন চালু

১০:৩১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ৩০, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধিঃ  ঈদ উপলক্ষে পশ্চিমাঞ্চল রেলের পাকশী বিভাগের বিভিন্ন ষ্টেশন থেকে বৃহস্পতিবার থেকে অতিরিক্ত ৮টি ঈদ স্পেশাল ট্রেন চালু করা হয়েছে। ট্রেন ৮টির মধ্যে পার্বতীপুর ষ্টেশন থেকে ঢাকা ঈদ স্পেশাল ট্রেন, ঢাকা ষ্টেশন থেকে পার্বতীপুর পর্যন্ত ঈদ স্পেশাল ট্রেন, খুলনা ষ্টেশন থেকে ঢাকা ঈদ স্পেশাল ট্রেন এবং ঢাকা ষ্টেশন থেকে খুলনা পর্যন্ত ঈদ স্পেশাল ট্রেন উল্লেখযোগ্য।

রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় সদর দপ্তর সূত্র জানায়, পাকশী বিভাগ থেকে ঢাকাসহ বিভিন্ন রুটে প্রতিদিন ৪২টি ট্রেন চলাচল করে। এর সঙ্গে ঈদ উপলক্ষে যুক্ত হয়েছে আরও ৮টি স্পেশাল ট্রেন। যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ কমাতে এসব ট্রেনে যুক্ত হয়েছে অতিরিক্ত ১৪টি করে কোচ। প্রতিটি স্পেশাল ট্রেনে আসন থাকছে ৭৪০টি। প্রতিদিন অতিরিক্ত কোচ দিয়ে যাত্রীবহন করা যাবে ২২৭০ জন। সেই হিসাবে প্রতিদিন পাকশী বিভাগে অতিরিক্ত ৫ হাজার ৫শ অতিরিক্ত যাত্রী বহন করা যাবে।

যাত্রীসেবা নিশ্চিত করণ, রাজস্ব আয় ও রেলের সুনাম বৃদ্ধির লক্ষে এ সব কর্মসুচি গ্রহন করা হয়েছে। অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে রেল মন্ত্রনালয়ের নির্দেশে এ সব কর্মসুচি পালন করা হচ্ছে। মন্ত্রনালয়ের নির্দেশে পশ্চিমাঞ্চলের জিএম খাইরুল আলম, ডিআরএম আফজাল হোসেন, সিসিআরএনবি শাহ আলম ভুঁইঞা, নাজমুল হাসান, সিসিএম মিহিরকান্তিগুহ ও ডিটিও শওকত জামিল মৌসীসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় ঈদের আগে এবং পরে সতের দিন বিশেষ ট্রেন সার্ভিস চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ সব ট্রেনের মধ্যে খুলনা,ঈশ্বরদী ঢাকা,খুলনার মধ্যে চলাচলকারী ৭ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে একটা এসি কেবিন ও চারটি শোভন চেয়ার কোচ। ঢাকা, ঈশ্বরদী খুলনা, ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী ১২ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে ১টি এসি চেয়ার ও ১টি প্রথম শ্রেণীর কোচ। রাজশাহী, ঈশ্বরদী খুলনা, রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী ৯ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে ১ টি প্রথম শ্রেণীর কোচ। রাজশাহী, ঈশ্বরদী খুলনা, রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী ৮ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে ১ টি শোভন চেয়ার কোচ। রাজশাহী, ঈশ্বরদী ,রাজবাড়ি ও রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী ৮ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হয়েছে ১টি শোভন চেয়ার কোচ। লালমনিরহাট, ঈশ্বরদী বাইপাস, ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী ১২ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে ১টি এসি কেবিন।

paksiদিনাজপুর, ঈশ্বরদী বাইপাস, ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী ১২ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর একতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হয়েছে ১টি শোভন চেয়ার কোচ। ঢাকা,ঈশ্বরদী বাইপাস ও দিনাজপুরের মধ্যে চলাচলকারী ১২ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হয়েছে ১টি শোভন চেয়ার কোচ ।

রংপুর,ঈশ্বরদী বাইপাস ও ঢাকা,রংপুরের মধ্যে চলাচলকারী ১২ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হবে ১টি শোভন চেয়ার কোচ । চিলাহাটি ,ঈশ্বরদী বাইপাস ও ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী ৭ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ করা হয়েছে ১টি চেয়ার কোচ ও ৪টি শোভন কোচ।
নীলফামারি ,আব্দুলপুর ও রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী ১০ কোচ বিশিষ্ট আন্তঃনগর বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে অতিরিক্ত যোগ হয়েছে ১টি শোভন চেয়ার কোচ ।

এসব অতিরিক্ত বিভিন্ন প্রকার কোচ সংযোজিত বিশেষ ট্রেনগুলো আগামি ৩০ জুন থেকে শুরু করে ১৭ জুলাই পর্যন্ত নির্ধারিত রুটে চলাচল করবে।
এছাড়াও ঈদের আগের তিন দিন এবং ঈদের পরের দ্বিতীয় দিন থেকে সাত দিন পর্যন্ত ৯ কোচ বিশিষ্ট ও ১০ কোচ বিশিষ্ট দু’টি পৃথক ঈদ স্পেশাল ট্রেন পারবর্তীপুর,ঈশ্বরদী বাইপাস , ঢাকা ও পারবর্তীরের মধ্যে এবং খুলনা,ঈশ্বরদী ,ঢাকা ও খুলনার মধ্যে চলাচল করবে।
পাকশী রেলওয়ে বিভাগীয় ডিআরএম আফজাল হোসেন জানান, ঈদ উপলক্ষে প্রতিটি ট্রেনের আসন সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। ঈদের আগের দিন রাজশাহী থেকে ঢাকা অভিমুখী ধুমকেতু, সৈয়দপুর থেকে ঢাকা অভিমুখী নীলসাগর ট্রেন ও খুলনা থেকে ঢাকা অভিমুর্খী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকবে। এছাড়া পাকশী বিভাগের খুলনা ও রাজশাহী ষ্টেশনে ফেরত যাত্রীদের জন্য শুক্রবার থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে।

Loading...