সংবাদ শিরোনাম
রাঙ্গা সম্পর্কে কটূক্তি করার প্রতিবাদে রংপুরে ফিরোজ রশীদের কুশপুত্তলিকা দাহ | ময়মনসিংহে অনলাইন জিডির উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | ইবির ভর্তি পরীক্ষাঃ ‘এ’ ইউনিটে জিরো থেকে হিরো এক শিক্ষার্থী | মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠির দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেয়নি বাকৃবি প্রশাসন | ঠাকুরগাঁওয়ে বাল্যবিবাহের চেষ্টা, কাজী ও বরকে কারাদণ্ড | টাঙ্গাইলে আবারো কালীমন্দিরে ভাংচুর | ৫ কেজি চালের দামে ১ কেজি পেঁয়াজ! | ‘সিগন্যাল ব্যবস্থাপনায় ত্রুটির কারণে উল্লাপাড়ায় দুর্ঘটনা’- রেল সচিব | ‘জঙ্গিদের কাছে কোরআন-হাদিসের দাওয়াত পৌঁছে দিতে হবে’- গণপূর্ত মন্ত্রী | পেঁয়াজের দাম বাড়ানো ব্যবসায়ীদের ক্রসফায়ারের দাবি সংসদে |
  • আজ ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভারতে জাকির নায়েককে নিষিদ্ধের দাবি ! শুনে যা বললেন এই ধর্ম প্রচারক

৯:৫৮ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুলাই ৬, ২০১৬ আলোচিত

hqআন্তর্জাতিক ডেস্ক: বাংলাদেশে এক আওয়ামী লীগ নেতার জঙ্গি ছেলে ফেসবুকে ভারতের খ্যাতনামা ইসলামী চিন্তাবিদ, বক্তা ও লেখক জাকির নায়েকের উদ্ধৃতি দেয়ায় তাকে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছে ভারতের কিছু লোক।

গুলশানে কমান্ডো অভিযানে নিহত রোহান ইবনে ইমতিয়াজ গত জানুয়ারিতে জাকির নায়েকের নাম করে উদ্ধৃতি দেয় যে ‘সব মুসলিমকে সন্ত্রাসবাদী হতে হবে।’এরপর সে নিখোঁজ হয়।

রোহান ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা ইমতিয়াজ খান বাবুলের ছেলে৷

রোহানের এ উদ্ধৃতি ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলে জাকির নায়েককে নিষিদ্ধের দাবি ওঠে। হিন্দু মৌলবাদী সংগঠন শিব সেনাও এ দাবি তুলেছে।

তবে এ দাবি প্রকারান্তরে নাকচ করে দিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজ্জু।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা ব্যক্তিকে নিষিদ্ধ করি না। আমরা নিষিদ্ধ করি সংগঠনকে।  এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক অনুরোধ পাইনি। তারা অনুরোধ করলে আমরা বিবেচনা করে দেখব কী করা যায়।’

আরবি ভাষাভাষীদের বাইরে ইসলাম প্রচারকারীদের মধ্যে অন্যতম আলোচিত হলেন জাকির নায়েক। নিজের প্রতিষ্ঠিত পিস টিভিতে তিনি তুলনামূলক ধর্মতত্ত্ব নিয়ে যে আলোচনা করেন, তা বাংলাদেশের মানুষের কাছেও ব্যাপক পরিচিত।

ভারতের মহারাষ্ট্রে জন্ম নেওয়া জাকির আবদুল করিম নায়েক চিকিৎসা শাস্ত্রে ডিগ্রিধারী। ৪৭ বছর বয়সী এই বক্তা ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট। পিস টিভি ওই ফাউন্ডেশনেরই প্রতিষ্ঠান, যেটি বাংলাদেশে বাংলাভাষায়ও সম্প্রচার করে থাকে।

তবে যুক্তরাজ্য ও কানাডার মত খ্রিষ্টান প্রধান দেশের পাশাপাশি মুসলিম প্রধান মালয়েশিয়াতেও জাকির নায়েকের বক্তব্য প্রচারের অনুমতি নেই।

তবে ভারত ও বাংলাদেশে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়। মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী দেশ সৌদি আরবে তিনি সাদরে গৃহীত। ইসলামের সেবার জন্য সৌদি বাদশা সালমান গত বছর তাকে নিজ হাতে বাদশা ফয়সাল আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত করেছেন।

আধুনিক ইসলামের অন্যতম প্রচারক মনে করা হয় তাকে। তার পিস টিভির দর্শক ২০ কোটি।

অন্যান্য আলেমদের মত বেশভূষার পরিবর্তে তিনি পশ্চিমা পোশাক পোশাক পরে ইংরেজিতে ওয়াজ করেন।

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে সর্বশেষ এ অভিযোগ ওঠার পর পবিত্র মক্কা নগরী থেকে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকাকে দেয়া এক টেলিফোন সাক্ষাৎকারে তিনি ইসলামিক স্টেটকে অনৈসলামিক বা ‘ইসলামবিরোধী’ বলে মন্তব্য করেন।

‘ইসলামের নাম ব্যবহার করে আমরা ইসলামের নিন্দা করছি… ইরাক সিরিয়ার ইসলামিক স্টেট ইসলামবিরোধী, যারা নিরপরাধ বিদেশিকে হত্যা করছে। ইসলামের দুশমনরা এ নাম (আইএস) দিয়েছে।’

সাক্ষাৎকারে জাকির নায়েক জানান, ফেসবুকে তার অনুসারি ১ কোটি ৪০ লাখ। উর্দু, বাংলা, চীনাসহ বিভিন্ন ভাষায় প্রায় ২০ কোটি লোক পিস টিভি দেখে থাকেন।

‘আমার অনুসারিদের বড় অংশই বাংলাদেশি। বাংলাদেশে প্রবীণ রাজনীতিক, সমাজসেবক, সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীসহ দেশটির ৯০ ভাগ মানুষ আমায় চেনেন। (দেশটির) ৫০ ভাগ লোক আমার ভক্ত। হামলাকারীরা আমাকে চিনলে আমি কী মর্মাহত হবো? না।’

সূত্র: ওয়াশিংটন পোস্ট

Loading...