সংবাদ শিরোনাম
সেন্টমাটিনে ভাসমান ট্রলার থেকে মালয়েশিয়াগামী ১২২ রোহিঙ্গা উদ্ধার | রাঙ্গা সম্পর্কে কটূক্তি করার প্রতিবাদে রংপুরে ফিরোজ রশীদের কুশপুত্তলিকা দাহ | ময়মনসিংহে অনলাইন জিডির উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | ইবির ভর্তি পরীক্ষাঃ ‘এ’ ইউনিটে জিরো থেকে হিরো এক শিক্ষার্থী | মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠির দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেয়নি বাকৃবি প্রশাসন | ঠাকুরগাঁওয়ে বাল্যবিবাহের চেষ্টা, কাজী ও বরকে কারাদণ্ড | টাঙ্গাইলে আবারো কালীমন্দিরে ভাংচুর | ৫ কেজি চালের দামে ১ কেজি পেঁয়াজ! | ‘সিগন্যাল ব্যবস্থাপনায় ত্রুটির কারণে উল্লাপাড়ায় দুর্ঘটনা’- রেল সচিব | ‘জঙ্গিদের কাছে কোরআন-হাদিসের দাওয়াত পৌঁছে দিতে হবে’- গণপূর্ত মন্ত্রী |
  • আজ ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জেএমবির সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে মসজিদের মুয়াজ্জিন সহ গ্রেফতার চার

৯:১২ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ৭, ২০১৬ আলোচিত, রাজশাহী, স্পট লাইট

বগুড়া প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর-

জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন, তার দুই ছেলে ও এক আত্মীয়কে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার দিকে শহরের পুরান বগুড়া পাওয়ার হাউজ আবাসিক এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ  ।

আটকরা হলেন মসজিদের মুয়াজ্জিন আব্দুল মজিদ (৫৫), তার ছেলে মুজাহিদীন (২৮), আব্দুল মুহিত (১৪) এবং বাসায় বেড়াতে আসা এক আত্মীয়।

পিডিবির আবাসিক এলাকায় বসবাসরত কর্মকর্তা কর্মচারীগণ জানান, দুপুর দুইটার দিকে পুলিশের তিনটি ভ্যান ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর তারা আব্দুল মজিদ যে বাসায় বসবাস করেন ওই বাসাটি ঘিরে রাখেন। এ সময় কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা বাসার ভিতরে গিয়ে চারজনকে আটক করেন। আটকদের নিয়ে যাওয়ার সময় প্রতিবেশিরা পুলিশের কাছে জানতে চাইলে পুলিশ জানায় জেএমবি’র সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার ব্যাপারে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

arrest

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন কর্মচারী জানান, আব্দুল মজিদ প্রায় ২৫ বছর যাবৎ পিডিবির আবাসিক এলাকায় বসবাস করেন এবং মসজিদের মুয়াজ্জিন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি কুমিল্লা জেলার বাসিন্দা। তার বাসা থেকে যে আত্মীয়কে পুলিশ আটক করেছে তাকে এর আগে কখনও আসতে দেখা যায়নি।

বগুড়া সদর থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (তদন্ত) আসলাম আলী জানান, আটক চারজনের মধ্যে আব্দুল মজিদ ও তার বাড়িতে বেড়াতে আসা যুবককে জেএমবির সঙ্গে জড়িত থাকার ব্যাপারে পুলিশ সন্দেহ করছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Loading...