আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ২ বছরের শিশুর শরীরে দায়ের কোপ, পুলিশের টিয়ারশেল নিক্ষেপ

৯:২৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুলাই ১৬, ২০১৬ অপরাধ, দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি- পাবনার বেড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দুই বছরের এক শিশুকে দায়ের কোপ দিয়ে গুরুতর আহত এবং পুলিশসহ উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ২ রাউন্ড গুলি ও ১ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।pabna_somoyerkonthosorপুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পুরানভারেঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা মো. রফিক উল্লাহ এবং স্থানীয় প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা শাহানুর হোসেন ওরফে ছানু মাতবর এর মধ্যে নগরবাড়ি ঘাটের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সহায়তায় এলাকায় সন্ত্রাসীরা মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

এরই জের ধরে শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ইমান শেখ, শাজাহান ও জিলালের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আওয়ামীলীগ শাহানুর হোসেন ওরফে ছানু মাতবরের সমর্থক রঘুনাথপুর গ্রামের আফতাব শেখ এবং প্রতাপপুর গ্রামের এমদাদুল হক তোতার বাড়ীতে হামলা চালায় এবং অগ্নিসংযোগ করে। ফলে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। উভয়পক্ষের সমর্থকরা গ্রামে অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এসময় সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে আবুল হাশেম (৪২), মুরাদ চৌধুরী (৪৫), বিপ্লব (২২) ও সাইফুল (৩০) এর অবস্থা গুরুতর। এ ছাড়া সংঘর্ষের পৃথক ঘটনায় বিলাল সেখের শিশুকন্যা রুশনা (২) এর গায়ে দায়ের কোপ লাগে। খবর পেয়ে আমিনপুর থানা ও নগরবাড়ি ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ২ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও ১ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় সংঘর্ষকারীদের অস্ত্রের আঘাতে পুলিশ কনস্টেবল ফারুক হোসেনের মাথায় আঘাত লাগে। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমএম তাজুল হুদা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ খবর লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।