সংবাদ শিরোনাম
নোবিপ্রবি’তে ‘বিশ্ব ডিএনএ দিবস’ পালিত! | গরমে ভোগান্তি চরমে, শুক্রবার আরও বাড়তে পারে তাপমাত্রা! | নোবিপ্রবিতে ২য় আন্তর্জাতিক ফিসারিজ শীর্ষক সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত | ‘একটি ছবি তোলার জন্য অনেক সময় জীবনের ঝুঁকি নিতে হয়’- তথ্যমন্ত্রী | আমতলীতে জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে মারধর | জন্মদিন ভুলে যাওয়ায় বাবা-মায়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষিকার আত্মহত্যা! | শপথ পড়লেন আমতলী উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা | হবিগঞ্জ বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন | ধান ফলায় কৃষক, মুনাফা লুটে মজুতদার ও মধ্যস্বত্ত্বভোগীরা! | কক্সবাজারে বিল বকেয়া থাকার অভিযোগে কয়েকটি মসজিদে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন |
  • আজ ১২ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় সোনাইল বাঁধ ভেঙে নতুন করে ১০ গ্রাম প্লাবিত

৫:৪৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুলাই ৩১, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধা সদর উপজেলার সোনাইল বাঁধ ভেঙে ১০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে নতুন করে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ১০ সহস্রাধিক মানুষ। আজ রবিবার দুপুরে উপজেলার বাদিয়াখালি ইউনিয়নের চুনিয়াকান্দি এলাকায় ঘাঘট নদীর পানির চাপে বাঁধের ১০০ মিটার ভেঙে যায়।

gram-bonna

বাদিয়াখালি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সাফায়েতুল ইসলাম পাভেল সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, এক সপ্তাহ ধরে ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। এতে বাঁধটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় দুপুরে পানির চাপে বাঁধটি ভেঙে যায়। এতে নতুন করে ১০ হাজারের বেশী মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া আতঙ্কে রয়েছে আরও ১০ হাজার মানুষ। ফলে এলাকার বন্যা পরিস্থিতি আরো প্রকট আকার ধারণ করেছে।

তিনি অভিযোগ করেন, গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতির কারণেই বাঁধটি ভেঙে গেছে। এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমে বালুর বস্তা ফেলে বাঁধটি রক্ষার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে আসছিল বলেও জানান তিনি।

এর আগে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী ইউনিয়নে রতনপুর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের সিংড়িয়া পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্র নদের পানির প্রবল চাপে বাঁধটি ভেঙে যায়। এতে অর্ধলক্ষাধিক মানুষ নতুন করে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এ নিয়ে চলতি বন্যায় জেলার দুটি বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ধসে গেল।