ভোলায় কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় শোক দিবস পালন করলো

১১:৩৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০১৬ বরিশাল

এস আই মুকুল, ভোলা প্রতিনিধি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৪১ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া অনুষ্ঠান, র‌্যালী, নাটক, কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ভোলায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শোক দিবস পালন করে। ১৪ আগস্ট রোববার ভোলা সদরের ফাতেমা খানম ডিগ্রী কলেজ, চরপাঙ্গাশিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা, সদুরচর ইসলামিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা, চরআনন্দ মফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার উদ্দ্যেগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

ফাতেমা খানম কলেজ: অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ প্রশাসক আব্দুল মমিন টুলু। এ সময় বক্তব্য রাখেন কলেজ গর্ভনিং বোর্ডের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ নজরুল ইসলাম, কামাল হোসেন, আবুল বাশার, এবিএম সাত্তার, মামুনুর রশিদ, কবি হাওলাদার মাকসুদ, অমিতাভ অপু, খাদিজা আখতার, রেহানা ফেরদৌস প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কয়েক হাজার শিক্ষর্থী এসব অনুষ্ঠানে অংশ নেয়।

volaসদুর চর বালিকা মাদ্রাসা: সদুর চর ইসলামিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসায় সকাল ১০টায় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ আলমগীরের সভাপতিত্বে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারেফ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম গোলদার, ভোলা সদর উপজেলার ভাইস্ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউনুছ, মাদ্রাসা সুপার রফিকুল ইসলাম খান। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানসহ ওই দিন নিহত সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।

চরপাঙ্গাশিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসা: এ উপলক্ষে সকাল ১১টয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ইউনুছের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারেফ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম গোলদার। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মাওঃ আঃ আজিজ, প্রভাষক মোঃ আমির হোসেন, পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান।

সভায় বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ। তাই এদেশের শত্রুরা দেশি-বিদেশী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে একটি কু-চক্রী মহলের সহযোগীতায় শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করেছিল। তারা মনে করেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে বাংলাদেশ ধ্বংশ করতে পারবে। তারা সফল হতে পারেনি। তাই তারা বর্তমানে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে রুখতে সন্ত্রাস ও জঙ্গীদের নামে বিভিন্ন অপকর্ম করে যাচ্ছে। আমরা সকলে একত্রিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব।

Loading...