টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলার চার্জ গঠন ৯ নভেম্বর

অন্তু দাস হৃদয়, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদকারী, টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার চার্জ গঠনের দিন বৃহস্পতিবার ধার্য থাকলেও তা পিছিয়ে ৯ নভেম্বর করা হয়েছে।

farukএ মামলার প্রধান আসামি বর্তমান ক্ষমতাশীল দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ টাঙ্গাইল-৩ ঘাটাইল আসনের সাংসদ আমানুর রহমান খান রানা অসুস্থ থাকায় ও মামলার ৭ আসামি পলাতক থাকায় এই চার্জ গঠনের দিন পিছিয়েছেন আদালত।

এ ছাড়াও আদালত এ মামালায় আত্মসমর্পণ করা আরো দুই আসামি টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর মাসুদুর রহমান মাসুদ ও নাসির উদ্দিন নুরুর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আবুল মনসুর মিয়া এ আদেশ দেন।

এ ব্যাপারে মামলার রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী মনিরুল ইসলাম খান সময়ের কন্ঠস্বর’কে বলেন, টাঙ্গাইলের আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি টাঙ্গাইল-৩ ঘাটাইল আসনের সাংসদ আমানুর রহমান খান রানা অসুস্থ থাকাসহ মামলার পলাতক ৭ আসামির পক্ষে স্টেট ডিফেন্স নিয়োগ করার আদেশ প্রদান করে এ মামলার চার্জ গঠনের দিন ৯ নভেম্বর ধার্য করা হয়েছে।

পরে, আজ (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবুল মনসুর মিয়া আসামি ও বাদী পক্ষের যুক্তিতর্ক শুনে মামলার আত্মসমর্পণ করা অপর দুই আসামি টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক কাউনসিলর মাসুদুর রহমান মাসুদ ও নাসির উদ্দিন নুরুর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইলের আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার অপর দুই আসামি টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক কাউনসিলর মাসুদুর রহমান মাসুদ ও নাসির উদ্দিন নুরু আত্মসমর্পণ করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি টাঙ্গাইল পৌর এলাকার কলেজ পাড়ায় নিহত ফারুক আহমদের নিজ বাসার কাছে ফারুক আহমদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পাওয়া যায়। পরে নিহত ফারুক আহমদের স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ চলতি বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি এই মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করেন।